শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

একতারায় বাজে রুস্তমের জীবন

আপডেট : ০৩ মার্চ ২০১৯, ১২:৪৮ এএম

রুস্তম আলী ফকির। চোখে ঠিকমতো দেখতে পান না। কানেও শোনেন কম। বেশ কটি দাঁতও নেই। বয়সের ভারে চলতে হয় একটু ঝুঁকে। ধীরপায়ে হেঁটে বেড়ান কুয়াকাটা সমুদ্রসৈকতের এ-প্রান্ত থেকে ও-প্রান্তে। একতারা হাতে জীবিকার তাগিদেই এভাবে পথচলা পঁয়ষট্টি-ঊর্ধ্ব রুস্তম আলীর। পর্যটকদের গান শুনিয়ে যা উপার্জন হচ্ছে তাতেই চলছে দুজনের সংসার। 

জেলার কলাপাড়া উপজেলার লতাচাপলী ইউনিয়নের আজীমপুর গ্রামের বাউলশিল্পী রুস্তম আলী ফকির জানান, ছোটবেলায় শখের বশেই গান শেখেন। তার এ শখ হয়ে দাঁড়ায় নেশা। ১৯৮০ সালে একতারা হাতে নেমে পড়েন রাস্তায়। গ্রাম থেকে গ্রামে। এমনকি শহরে ঘুরেও গান শোনাতেন। যা রোজগার হতো তা দিয়ে বাজার করে গভীর রাতে ফিরতেন বাড়িতে। প্রথমদিকে পরিবারের লোকজন এ নিয়ে বিরক্তি প্রকাশ করলেও পরে তারা সয়ে নিয়েছেন। এভাবেই ৩৭ বছর ধরে চলছে লালনভক্ত রুস্তম আলী ফকিরের সংসার। মেয়েকে বিয়ে দিয়েছেন ১০ বছর। ছেলে বিয়ে করে বসতি গড়েছেন অন্য জায়গায়। এখন স্বামী-স্ত্রীর দুজনের ছোট্ট সংসার।

এখন আর গ্রামে নয়, সন্ধ্যার পর কুয়াকাটা সৈকতে দেখা মেলে রুস্তম আলী ফকিরের। ছাতার নিচে বসে থাকা বিভিন্ন বয়সী পর্যটকদের লালনের গান শোনান। তার গানের নেই কোনো নির্দিষ্ট সম্মানী। পর্যটকরা খুশি হয়ে যা দেন তাতেই তিনি খুশি।

রুস্তম আলী ফকির বলেন, ‘অসুস্থতার কারণে প্রতিদিন সৈকতে আসতে পারি না। ঠিকমতো গানও গাইতে পারি না। সপ্তাহে তিন-চার দিন আসি। দুই-তিনশ টাকা আয় হয়। কোনো দিন কিছুই জোটে না। বয়স্কভাতার জন্য অনেকবার জনপ্রতিনিধিদের কাছে গিয়েছি। শুধু আশ্বাস মিলেছে।’ এ প্রতিনিধির কাছে প্রশ্ন রেখে তিনি বলেন, কত বয়স হলে পাব বয়স্কভাতা?

লতাচাপলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আনসার উদ্দিন মোল্লা বলেন, বয়স্কভাতা প্রদানের জন্য নতুন তালিকা প্রণয়ন করা হচ্ছে। রুস্তম আলী ফকির বয়স্কভাতা পাবেন। পটুয়াখালী সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপপরিচালক শীলা রানী দাস বলেন, ‘বিষয়টি এখন জানলাম। খুব দ্রুতই তার হাতে বয়স্কভাতার কার্ড পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত