শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

বিচ্ছেদেও স্বস্তি নেই জনি ডেপের

আপডেট : ০৩ মার্চ ২০১৯, ১১:৫৮ পিএম

ডেভি জোনসের সঙ্গে বারবার জিতে যেতেন ‘পাইরেটস অব দ্য ক্যারিবিয়ান’ ছবির দস্যু ক্যাপ্টেন জ্যাক স্প্যারো। কিন্তু ব্যক্তিজীবনে একটি ধস সামলাতেই হিমশিম খেতে হচ্ছে তাকে। স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পরও শান্তি পেলেন না ক্যাপ্টেন জ্যাক স্প্যারো ওরফে জনি ডেপ। সাবেক স্ত্রী আম্বার হার্ড তার সম্মান নিয়ে ছিনিমিনি খেলেছেন। নির্যাতনের মিথ্যে অভিযোগ করায় এবার তার বিরুদ্ধে পাঁচ কোটি ডলার মানহানির মামলা করলেন এই হলিউড তারকা। গত বছর ডিসেম্বর মাসে আম্বার হার্ড ‘ওয়াশিংটন পোস্ট’-এ একটি নিবন্ধ লিখেছিলেন। সেখানেই উঠে আসে সাবেক স্বামীর হাতে তার নির্যাতিত হওয়ার কথা। বিষয়টিকে ইস্যু করে সাবেক স্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন জনি। মামলায় বলা হয়েছে, মিস হার্ড তার লেখায় একজন তারকাকে নির্যাতক হিসেবে তুলে ধরেছেন। সেখানে তিনি দাবি করেছেন, যৌন সহিংসতা নিয়ে মুখ খোলায় বিপদে পড়তে হয়েছে তাকে। জনি ডেপ মামলায় উল্লেখ করেছেন, তার বিরুদ্ধে মিথ্যে অভিযোগ করে আম্বার মানুষের সহানুভূতি পাওয়া এবং নিজের ক্যারিয়ারকে এগিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেছেন। জনির দাবি, দুজন পুলিশ কর্মকর্তা আম্বারের অভিযোগ মিথ্যে প্রমাণ করে দিয়েছেন। তা ছাড়া কিছু ক্যামেরার ফুটেজ বিষয়টিকে আরও পরিষ্কার করে দিয়েছে।

অন্যদিকে ডেপের আইনজীবী জানিয়েছেন, যদিও লেখার কোথাও ডেপের নাম উল্লেখ করা হয়নি, কিন্তু নিবন্ধটিতে তিনি নিজের ঘরে নির্যাতিত হওয়ার বর্ণনা দিয়েছেন। জনি ডেপ ছাড়া কে তাকে নির্যাতন করবেন?

হলিউডের এই দুই তারকার জীবনে আলোচিত এই ঘটনাগুলো ঘটে ২০১৬ সালের ২১ মে। আম্বারের দাবি, জনি তার গায়ে হাত তুলেছেন। জনির এক প্রতিবেশী জানিয়েছেন, তারা খুব কাছাকাছি দাঁড়িয়ে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময় করছিলেন। অন্যদিকে দুই পুুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ২১ মে খুব ভালো করে তারা আম্বারকে দেখেছেন। তার গায়ে কোনো আঘাতের চিহ্ন দেখেননি তারা। জনিদের বাড়ির তত্ত্বাবধায়ক এক নারী জানিয়েছেন, বাড়িতে থাকা একটি ক্যামেরার কিছু ভিডিও থেকে আম্বারের বোন হুইটনি হার্ডকে আম্বারের গালে থাপ্পড় মারতে দেখেছেন।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত