রোববার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

বৈরী আবহাওয়া

সেন্টমার্টিনে আটকা ২ হাজারের বেশি পর্যটক

আপডেট : ০৭ মার্চ ২০১৯, ০৪:০৯ এএম

উত্তাল সাগর, বজ্রমেঘ ও বৃষ্টিপাতসহ বৈরী আবহাওয়ার কারণে টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌপথে জাহাজ চলাচল বন্ধ থাকায় গতকাল বুধবার সেন্টমার্টিন দ্বীপে আটকা পড়েছে দুই হাজারের বেশি পর্যটক। আবহাওয়া স্বাভাবিক হলে তাদের ফিরিয়ে আনার উদ্যোগ নেওয়া হবে বলে আশ্বস্ত করেছে স্থানীয় প্রশাসন।

কক্সবাজার আবহাওয়া কার্যালয়ের আবহাওয়াবিদ মোহাম্মদ শহীদুল ইসলাম দেশ রূপান্তরকে বলেন, ‘বজ্রমেঘের ঘনঘটা বৃদ্ধির ফলে কক্সবাজারের উপকূলে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে। এর প্রভাবে বুধবার ভোর ৬টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত কক্সবাজারে ৩৬ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। এ কারণে বঙ্গোপসাগর ও নাফ নদী উত্তাল আছে এবং মাছ ধরার ট্রলারসহ সব ধরনের নৌযানকে নিরাপদ স্থানে থাকতে বলা হয়েছে। বৃহস্পতিবারও এ সতর্ক সংকেত বলবৎ থাকতে পারে।’

সেন্টমার্টিন দ্বীপ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুর আহমদ আনোয়ারী দেশ রূপান্তরকে বলেন, ‘দ্বীপে বেড়াতে এসে দুই হাজারের বেশি পর্যটক আটকা পড়েছে। বৈরী আবহাওয়ার কারণে কোনো জাহাজ দ্বীপে না আসায় এসব পর্যটক টেকনাফে ফিরতে পারেনি। আটকে পড়া পর্যটকদের প্রয়োজনীয় সহযোগিতা করা হবে।’

টেকনাফের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. রবিউল হাসান বলেন, ‘টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌপথে পর্যটকবাহী সাতটি জাহাজ চলাচল করছে। তবে বৈরী আবহাওয়ায় ৩ নম্বর সতর্ক সংকেতের কারণে দুর্ঘটনা এড়াতে জাহাজগুলো সেন্টমার্টিনে যায়নি। এর আগে বেড়াতে যাওয়া দুই হাজারের মতো পর্যটক দ্বীপে আটকা পড়েছে। তাদের খোঁজখবর রাখা হচ্ছে। আবহাওয়া স্বাভাবিক হলে আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) সকালে কয়েকটি জাহাজে তাদের ফিরিয়ে আনা হবে।’

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত