বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ১০ শ্রাবণ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

কুমিল্লার মামলায়

৬ মাসের জামিন পেলেন খালেদা

আপডেট : ০৭ মার্চ ২০১৯, ০৪:১০ এএম

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে বাসে পেট্রলবোমা হামলায় আটজনকে পুড়িয়ে হত্যার মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে ৬ মাসের জামিন দিয়েছে হাইকোর্ট। গতকাল বুধবার জামিনের এ আদেশ দেয় বিচারপতি এ কে এম আসাদুজ্জামান ও বিচারপতি এস এম মজিবুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ।

আদালতে খালেদা জিয়ার পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন ও এ জে মোহাম্মদ আলী। তাদের সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী এ কে এম এহসানুর রহমান ও মাসুদ রানা। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বশির উল্লাহ। এ মামলায় জামিন পেতে আইনজীবীদের মাধ্যমে গত ২৭ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্টে আবেদন করেন খালেদা জিয়া। এর আগে এ মামলায় কুমিল্লার বিচারিক আদালতে গত ৪ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়ার জামিন আবেদন নামঞ্জুর হয়।

গতকাল আদেশ শেষে আইনজীবী এ কে এম এহসানুর রহমান দেশ রূপান্তরকে বলেন, ‘কুমিল্লার মামলায় খালেদা জিয়াকে ৬ মাসের জামিন দিয়েছে হাইকোর্ট। তবে জামিন পেলেও কারামুক্তি পাচ্ছেন না তিনি। মুক্তি পেতে হলে তাকে আরও তিনটি মামলায় জামিন পেতে হবে।’

বিএনপি-জামায়াতসহ ২০-দলীয় জোটের ডাকা টানা অবরোধ ও হরতাল চলাকালে ২০১৫ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি ভোরে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে একটি নৈশকোচে পেট্রলবোমা নিক্ষেপ করে দুর্বৃত্তরা। এতে বাসের মধ্যে আগুনে পুড়ে সাতজন মারা যান। হাসপাতালে নেওয়ার পর মারা যান আরও একজন। আহত হন অন্তত ২৭ জন। এ ঘটনায় চৌদ্দগ্রাম থানায় ৭৭ জনকে আসামি করে মামলা করে পুলিশ। তদন্ত শেষে কুমিল্লার সংশ্লিষ্ট বিচারিক আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন তদন্ত কর্মকর্তা। এতে খালেদা জিয়াকে হুকুমের আসামি করা হয়।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত