বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ৯ শ্রাবণ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

দুই ম্যাচ হাতে থাকতেই সিরিজ দ. আফ্রিকার

আপডেট : ১১ মার্চ ২০১৯, ১২:০৭ এএম

কুইন্টন ডি ককের সেঞ্চুরিতে রানের পাহাড় গড়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। কিন্তু এরপর শ্রীলঙ্কার ব্যাটিং ইনিংসে বাগড়া বসায় বৃষ্টি। শেষ পর্যন্ত অবশ্য বৃষ্টি থামার পর খেলা হলো। কার্টেল ওভারের ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে জয় তুলে নিয়েছে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা।

রোববার বৃষ্টি আইনে শ্রীলঙ্কাকে ৭১ রানে হারায় দক্ষিণ আফ্রিকা। এই জয়ে দুই ম্যাচ হাতে থাকতেই পাঁচ ম্যাচের সিরিজ নিজেদের করে নিয়েছে প্রোটিয়ারা।

আগে ব্যাট করে ডি ককের সেঞ্চুরিতে ৫ উইকেটে ৩৩১ রানের সংগ্রহ গড়ে দক্ষিণ আফ্রিকা। জবাব দিতে নেমে শ্রীলঙ্কা ১৬ ওভারে ২ উইকেটে ৭৫ রান করার পর বৃষ্টি হানা দেয়। বৃষ্টি থামার পর শ্রীলঙ্কার সামনে নতুন লক্ষ্য দাঁড়ায় ২৪ ওভারে ১৯৩ রানের। শেষ পর্যন্ত ৫ উইকেটে ১২১ রানে থামে সফরকারী দল।

ক্যারিয়ারের ১৪তম ওয়ানডে সেঞ্চুরি করা  ডি কক ১০৮ বলে ১২১ রানের ইনিংস খেলেছেন ২ ছক্কা ও ১৬ চারে। টানা তিন ম্যাচেই তার ব্যাট থেকে এল ঝোড়ো ব্যাটিং। প্রোটিয়াদের ইনিংসে এক রেজা হেনড্রিকস ছাড়া বাকি ছয় ব্যাটসম্যানই রান পেয়েছেন।

৪ রানে ফিরেছিলেন হেনড্রিকস। সেই থেকে উইকেটের জন্য লড়াই করতে হয়েছে লঙ্কান বোলারদের। দ্বিতীয় উইকেটে অধিনায়ক ফ্যাফ ডু প্লেসিসকে (৩৬) নিয়ে দ্বিতীয় উইকেটে ৯৭ রানের জুটি গড়েন ডি কক। এরপর হাফসেঞ্চুরি (৫০) করা ভ্যান ডার ডুসেনের সঙ্গে তৃতীয় উইকেটে গড়েন ৬৬ রানের জুটি। মাঝে ৩১ রান করা ড্যান প্রিটোরিয়াস ডেভিড মিলারের সঙ্গে দলের স্কোরে ৫৩ রান যোগ করেন। এরপর ষষ্ঠ উইকেটে আন্দিলে ফেলুকওয়েও ও মিলার মিলে দলকে বিশাল স্কোর এনে দেন। ফেলুকওয়েও মাত্র ১৫ বলে ৩৮ করে অপরাজিত ছিলেন। ৪৬ বলে ৪১ রান করে অন্য অপরাজিত ব্যাটসম্যান মিলার।

বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শ্রীলঙ্কা শুরুর বিপদ সামলে ভালোই এগোচ্ছিল। বৃষ্টির পর আর চাহিদা অনুযায়ী ব্যাট করতে পারেনি শ্রীলঙ্কা। দলটির পক্ষে কুশল মেন্ডিস সর্বাধিক ৪১ রানের ইনিংস খেলেছেন। ম্যাচ সেরা হয়েছে ডি কক।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত