রোববার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

ডাকসু নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলছে

আপডেট : ১১ মার্চ ২০১৯, ০৮:২২ এএম

দীর্ঘ ২৮ বছর পর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে প্রতীক্ষিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদ নির্বাচন। সোমবার সকাল ৮টা থেকে শুরু হয় ভোটগ্রহণ। চলবে দুপুর ২টা পর্যন্ত। সকাল থেকেই ভোটারদের দীর্ঘ লাইন দেখা যায়।

জানতে চাইলে সলিমুল্লাহ মুসলিম হলের শিক্ষার্থী রুহুল কুদ্দুস বলেন, “এতোদিন পর নির্বাচন হচ্ছে, অনেক খুশি লাগছে। যোগ্য প্রার্থীকে ভোট দেব।”

এর আগে সকাল সাড়ে ৭টায় ব্যালটবাক্স ও নির্বাচনী সরঞ্জাম নেওয়া হয় ভোটকেন্দ্রে।

এটি ছাত্র সংসদের নির্বাচন হলেও অনেক আন্দোলন সংগ্রাম শেষে ২৮ বছর পর হওয়ায় এই নির্বাচন জাতীয় নির্বাচনের মতোই আগ্রহের জায়গা তৈরি করেছে। নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকেই ঢাবি ক্যাম্পাস অন্যরকম উৎসবে রূপ নেয়।

হলগুলোর প্রাধ্যক্ষ ও রিটার্নিং কর্মকর্তাদের কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, নির্বাচনে সময় ও শিক্ষার্থীর সংখ্যা বিবেচনা করে ১৮টি হলে ৫১৩টি পোলিং বুথ বসানো হয়েছে। এর মধ্যে শহীদুল্লাহ হলে ২০টি, জসীমউদ্দীন হলে ২০টি, সলিমুল্লাহ মুসলিম হলে ৩৫টি, সূর্য সেন হলে ৩৫টি, মুহসীন হলে ৩০টি, রোকেয়া হলে ৫০টি, সুফিয়া কামাল হলে ৪৫টি, জহুরুল হক হলে ২২টি, এএফ রহমান হলে ১৬টি, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলে ২৪টি, অমর একুশে হলে ২০টি, মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান হলে ২২টি, বিজয় একাত্তর হলে ৪০টি, বাংলাদেশ-কুয়েত মৈত্রী হলে ১৯টি, জগন্নাথ হলে ২৫টি, ফজলুল হক মুসলিম হলে ৩৫টি, শামসুন্নাহার হলে ৩৫টি ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলে ২০টি পোলিং বুথ বসানো হয়েছে।

নির্বাচন উপলক্ষে রোববার সন্ধ্যা ৬টার পর থেকেই বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। শুধু বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচয়পত্রধারী ও ডাকসু নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা অনুমোদিত পাসধারীরা ক্যাম্পাস এলাকায় যাতায়াত করতে পারবেন।

পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী, সন্ধ্যা ৬টা থেকে এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করা হয়েছে, যা সোমবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত বলবৎ থাকবে। বহিরাগতদের ক্যাম্পাস এলাকা ছাড়তে মাইকিং করছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্র্তৃপক্ষ। সন্ধ্যার আগে থেকেই টিএসসি, গ্রন্থাগার ও জনসমাগম জায়গাগুলোতে মাইকিং শুরু হয়। আবাসিক হলগুলোতে থাকা বহিরাগতদেরও হল ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

ক্যাম্পাস এলাকার প্রবেশ পথগুলোতে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। ভেতরে পুলিশ সদস্যদের উপস্থিতি খুব একটা লক্ষ করা না গেলেও প্রবেশপথগুলোতে পরিচয়পত্র ও পাস দেখানোর শর্তে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে।

নির্বাচনের দিন বিশ্ববিদ্যালয়ের তিনটি প্রবেশপথ (নীলক্ষেত, শাহবাগ ও হাইকোর্ট) বিশেষ নিরাপত্তা বেষ্টনীর আওতায় থাকবে। এই তিনটি প্রবেশপথ দিয়ে শুধু ভোটার ও নির্বাচন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা নিজ নিজ পরিচয়পত্র দেখিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ঢুকতে পারবেন। প্রবেশ পথগুলোতে ব্যারিকেড দিয়ে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত