শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

কেন রোজওয়েল : টেনিসের বুড়োদাদু

আপডেট : ০২ নভেম্বর ২০২০, ০১:৫৪ এএম

কেন রোজওয়েল শেষ গ্র্যান্ডস্ল্যাম ফাইনাল খেলেছেন ৪৭ বছর আগে। প্রায় অর্ধশতাব্দীর ব্যবধানে টেনিস অনেক বদলে গেছে। তিনিও বুড়ো হয়েছেন। তবে তার উত্তরাধিকার মুছে যায়নি। তাই ৮৬ বছরেও খ্যাতিমান তিনি। রড লেভারের সঙ্গে তার প্রতিদ্বন্দ্বিতার গল্প এখনো লোকের মুখে মুখে ফেরে। রজার ফেদেরার গ্র্যান্ডস্ল্যাম  জিতলে এখনো রোজওয়েল আলোচনায় উঠে আসেন একটাই কারণে তা হলো টানা ৩০ বছর পেশাদার টেনিসের সর্বোচ্চ পর্যায়ে খেলেছেন তিনি।

সিডনিতে জন্ম নেওয়া রোজওয়েল আরও অনেক ক্ষেত্রে ব্যতিক্রমের উদাহরণ। টেনিসের তিন যুগের অভিজ্ঞতা তার। সাফল্যও পেয়েছেন। অ্যামেচার যুগে জিতেছেন ২৬টি শিরোপা। পেশাদার যুগে সংখ্যাটা প্রায় তিনগুণ (৬৪)। ১৯৬৮-তে ওপেন যুগ শুরুর পর ৪৩টা শিরোপা জিতে র‌্যাকেট তুলে রাখেন। কোনোদিন উইম্বলডন জিততে পারেননি। যদিও চারবার ফাইনাল খেলেছেন। ১১ বার মেজর ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছেন রড লেভারের। জিতেছেন ৬ বার। সবচেয়ে স্মরণীয় জয়টা এসেছিল ডালাসে ৭২-এর ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালে। ‘রড আর আমি অসাধারণ কিছু ম্যাচ খেলেছি। যেখানে যে কেউ জিততে পারত। ভাগ্যক্রমে বেশিরভাগ সময় আমি জিতেছি। হয়তো রডের চেয়ে সামান্য ভালো খেলেছিলাম। ভালো না খেলে তার বিপক্ষে জেতা যেত না।’ বলেন রোজওয়েল।

১৯৭২ সালে সবচেয়ে বেশি ৩৭ বছর বয়সে অস্ট্রেলিয়ান ওপেন জিতেছিলেন তিনি। ২০১৮ সালে মেলবোর্নে শিরোপা জিতে সেই রেকর্ড ভাঙেন রজার ফেদেরার। সবচেয়ে বেশি বয়সে গ্র্যান্ডসø্যাম ফাইনাল খেলার রেকর্ডও রোজওয়েলের। ১৯৭৪’র ইউএস ওপেন ফাইনাল খেলেছিলেন তিনি ৩৯ বছর বয়সে। ফেদেরার তার এই রেকর্ডটিও ভাঙতে পারেন বলে মনে করেন রোজওয়েল।

তার রেকর্ড ভাঙলেও অর্জনে অমর হয়ে থাকবেন রোজওয়েল। তিন যুগ স্থায়ী ক্যারিয়ারে ২৩টা মেজর টাইটেল জিতেছেন রোজওয়েল, যার মধ্যে ৮টা গ্র্যান্ডসø্যাম। তিনিই একমাত্র অস্ট্রেলিয়ান যিনি টেনিসের উন্মুক্ত যুগের আগে-পরে এবং মাঝে গ্র্যান্ডস্ল্যাম জিতেছেন। ৯বার জিতেছেন ডাবল গ্র্যান্ডসø্যাম। খেলেছেন ৩৫টা মেজর ফাইনাল। একমাত্র টেনিস খেলোয়াড় যিনি উন্মুক্ত যুগের আগে তিনটি ভিন্ন সারফেসে গ্র্যান্ডসø্যাম জয়ের নজির গড়েন। উন্মুক্ত যুগের প্রথম অস্ট্রেলিয়ান ওপেন জয়ী পুরুষ খেলোয়াড় তিনি।

এত সফল্য যার ঝুলিতে সেই রোজওয়েল টেনিস খেলোয়াড় নাও হতে পারতেন। মাত্র ৫ ফিট ৭ ইঞ্চি উচ্চতা আর ৬৭ কেজির শরীর নিয়ে টেনিসে রাজত্ব করেছেন বাবার কারণে। বাবা ছিলেন মুদি দোকানদার। তার ঘরে ১৯৩৪ সালের ২ নভেম্বর সিডনিতে জন্ম রোজওয়েলের। ১ বছরের ছেলেকে নিয়ে রকডেলে চলে যান বাবা। সেখানে ছোট্ট রোজওয়েলের জন্য তিনটি ক্লে-কোর্ট কিনেছিলেন। মাত্র তিন বছর বয়সে খেলা শুরু করেন অস্ট্রেলিয়ান টেনিসের ভাবি কিংবদন্তি। ছোট্ট র‌্যাকেট দুই হাতে চেপে খেলতে থাকেন ফোর হ্যান্ড ও ব্যাকহ্যান্ড শট। ছোটবেলা থেকেই খুব সকালে অনুশীলনে নামতেন রোজওয়েল। একই শট অনুশীলন করতেন কয়েক সপ্তাহ। সেটা ভালো ভাবে রপ্ত হওয়ার পর শুরু করতেন অন্য শট খেলা। ছিলেন সহজাত বামহাতি। বাবা তাকে ডান হাতে টেনিস খেলতে শেখান। ভুল যে করেননি  রোজওয়েলের ৮টা গ্র্যান্ডস্ল্যাম তার প্রমাণ।

মাত্র ৯ বছর বয়সে প্রথম টুর্নামেন্ট খেলেন। এগারো বছরে মেট্রোপলিটন হার্ডকোর্ট চ্যাম্পিয়ন হন রোজওয়েল। এরপর বয়সভিত্তিক টুর্নামেন্টে তার অশ্বমেধের ঘোড়া টগবগিয়ে ছুটতে থাকে। ১৯৫৩-তে জেতেন প্রথম গ্র্যান্ডস্ল্যাম অস্ট্রেলিয়ান ওপেন। ওপেন এরাতে ১৯৭১, ১৯৭২ সালেও জিতেছেন এই শিরোপা।

বর্তমানে সিডনির উত্তরে বসবাস করেন। আজ সেখানেই ছিয়াশি বছরে জন্মদিনের কেক কাটবেন রোজওয়েল। অতীত সাফল্যের স্মৃতিচারণও হবে। সেই স্মৃতিচারণে হয়তো মিশে থাকবে উইম্বলডন না জেতার আফসোসও।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত