রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

গ্রামের তুলনায় ঢাকায় ডেঙ্গু রোগী বেশি

আপডেট : ০৩ অক্টোবর ২০২১, ০২:৪১ এএম

চলতি মাসের দ্বিতীয় দিনে ডেঙ্গু নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ১৮৮ জন। এর মধ্যে ঢাকার ৪৬টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ১৫৮ জন এবং ঢাকার বাইরের হাসপাতালে ৩০ জন ভর্তি হয়েছে। তবে এ সময়ে কারও মৃত্যু হয়নি।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্যমতে, বর্তমানে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন আছেন ৯৭৫ জন। তাদের মধ্যে ঢাকা মহানগরীর বিভিন্ন হাসপাতালে ৭৯৪ জন এবং ঢাকার বাইরে ২১০ জন। চলতি বছর হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসেছে ১৮ হাজার ৫৫০ ডেঙ্গু রোগী। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ১৭ হাজার ৪৭৮ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হওয়া ডেঙ্গু আক্রান্তদের মধ্যে শূন্য থেকে ১ বছরের মধ্যে ৩ দশমিক ৮ শতংশ, ১ থেকে ১০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ ৩০ দশমিক ৮ শতাংশ, ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে ১৩ দশমিক ৭ শতাংশ, ২১ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে ২৩ দশমিক ৩ শতাংশ, ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে ১১ দশমিক ৬ শতাংশ, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ৬ দশমিক ২ শতাংশ, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ৫ দশমিক ৫ শতাংশ এবং ৬০ বছরের ঊর্ধ্বে ৫ দশমিক ৫ শতাংশ রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে।   

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ডেঙ্গুর তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, দেশে ডেঙ্গুতে আক্রান্তের সংখ্যায় আগস্টের রেকর্ড ভেঙেছে সেপ্টেম্বরে। সেপ্টেম্বরে আগস্টের তুলনায় ১৪৩ জন বেশি রোগী ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। আগস্ট মাসে হাসপাতালে ভর্তির সংখ্যা ছিল ৭ হাজার ৬৯৮ জন। সেখানে গত সেপ্টেম্বরে ভর্তি হয়েছেন ৭ হাজার ৮৪১ জন। তবে আগস্টের তুলনায় সেপ্টেম্বরে মৃত্যু কমেছে। এর আগে জুলাই মাসে ২ হাজার ২৪৬ জন, জুন মাসে ২৭২ জন, মে মাসে ৪৩ জন, এপ্রিলে ৩ জন, মার্চ মাসে ১৩ জন, ফেব্রুয়ারিতে ৯ জন, জানুয়ারিতে ৩২ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়। তাছাড়া এ বছরের প্রথম ৬ মাসে ডেঙ্গুতে কোনো রোগীর মৃত্যু হয়নি। জুলাই থেকে রোগী বাড়ার পাশাপাশি মৃত্যুর ঘটনা শুরু হয়। গত আড়াই মাসেই ৬৮ জন মারা গেছেন। এর মধ্যে সেপ্টেম্বরে ২২ জন, আগস্টে ৩৪ জন ও জুলাইয়ে ১২ জন মারা গেছেন।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত