সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ২ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

মুহিবুল্লাহ হত্যা

আরও তিন রোহিঙ্গা গ্রেপ্তার

আপডেট : ০৩ অক্টোবর ২০২১, ০৩:০১ এএম

কক্সবাজারের উখিয়ার লম্বাশিয়া ক্যাম্পে সন্ত্রাসীদের গুলিতে রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ নিহতের ঘটনায় আরও তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গতকাল শনিবার ভোর ৪টার দিকে ক্যাম্পে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করেন আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) সদস্যরা।

গ্রেপ্তাররা হলেন উখিয়ার কুতুপালং লম্বাশিয়া ক্যাম্প-১ ইস্টের জিয়াউর রহমান (৩২), শওকত উল্লাহ ও আবদুস সালাম (২৯)। এ নিয়ে তিন রোহিঙ্গাকে গ্রেপ্তার করা হলো। গত শুক্রবার সকালে মো. সেলিম ওরফে লম্বা সেলিমকে (২৭) গ্রেপ্তার করেন এপিবিএনের সদস্যরা।

গতকাল সন্ধ্যায় সেলিম ও শওকতকে কক্সবাজার জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করে সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করে উখিয়া থানার পুলিশ। আদালতের পুলিশ পরিদর্শক চন্দন কুমার চক্রবর্তী জানান, আজ রবিবার তাদের রিমান্ড শুনানি হবে।

১৪ এপিবিএনের পুলিশ সুপার নাঈমুল হক জানান, রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে আরও দুজনকে গ্রেপ্তারের পর উখিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

গত বুধবার রাতে উখিয়ার কুতুপালং লম্বাশিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের নিজ কার্যালয়ে মাস্টার মুহিবুল্লাহকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে তার ভাই হাবিব উল্লাহ বাদী হয়ে উখিয়া থানায় অজ্ঞাত ২৫ জনের নামে হত্যা মামলা করেন।

এদিকে সন্ত্রাসীদের অব্যাহত হুমকিতে স্বজনদের নিয়ে আতঙ্কে দিন পার করছেন বলে জানিয়েছেন বাদী হাবিব উল্লাহ। তিনি বলেন, ‘ঘটনার পর সন্ত্রাসীরা আমাকে ও পুরো পরিবারকে হত্যা করে লাশ গুমের হুমকি দিচ্ছে। আমরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।’

এপিবিএন বলছে, ক্যাম্পসহ মুহিবুল্লাহর স্বজনদের নিরাপত্তায় টহল জোরদারের পাশাপাশি সার্বক্ষণিক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

উখিয়া থানার ওসি আহাম্মদ মঞ্জুর মোর্শেদ বলেন, ‘গ্রেপ্তার চারজনকে হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তবে তারা এখনো জড়িত থাকার বিষয়ে কোনো তথ্য দেননি।’ তিনি আরও বলেন, ‘নিহতের পরিবারকে সব ধরনের নিরাপত্তা দেওয়া হচ্ছে। এখন পর্যন্ত কেউ কোনো অভিযোগ করেনি।’

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত