শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

কখন ডায়াবেটিস পরীক্ষা করাবেন

আপডেট : ০৩ অক্টোবর ২০২১, ১১:৫৮ পিএম

অনেক রোগী ও ডায়াবেটিস নিয়ে সচেতন ব্যক্তি কখন রক্ত পরীক্ষা করাবেন তা নিয়ে বিভ্রান্ত থাকেন।

ডায়াবেটিস পরীক্ষা

ডায়াবেটিস বেশির ভাগ সময় উপসর্গবিহীন থাকতে পারে। তাই সবার উচিত ছয় মাস অন্তর জধহফড়হ ইষড়ড়ফ ংঁমধৎ (জইঝ) টেস্ট করা। যদি আপনার জইঝ ১১.১ মিলি মোল/লিটারের বেশি থাকে এবং আপনার নিম্নোক্ত উপসর্গের কোনো একটি থাকে, তাহলে আপনার ডায়াবেটিস হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। অতিরিক্ত পানির পিপাসা, অতিরিক্ত ক্ষুধা লাগা, প্রস্রাবের মাত্রা বেড়ে যাওয়া, ওজন কমা ও অতিরিক্ত দুর্বলতা। তাহলে আপনার উচিত খালি পেটে এবং খাওয়ার ২ ঘণ্টা পরে রক্তে সুগারের মাত্রা দেখা।

আর যদি জইঝ ৫.৫ মিলি মোল/লিটারের বেশি কিন্তু ১১.১ মিলি মোল/লিটারের কম থাকে তাহলে আপনার করা উচিত ঙএঞঞ। (মানে খালি পেটে এবং ৭৫ গ্রাম গ্লুকোজ খাওয়ার ২ ঘণ্টা পর রক্তে সুগারের মাত্রা)।

আর জইঝ যদি ৫.৫ মিলি মোল/লিটারের কম হয় তাহলে আপনার ডায়াবেটিস হয়নি বলা যেতে পারে।

ডায়াবেটিস নির্ণয়

ঙএঞঞ হচ্ছে ডায়াবেটিস নির্ণয়ের সবচেয়ে ভালো পরীক্ষা।

পরীক্ষা করার আগের তিন দিন গড়ে ন্যূনতম ১৫০ গ্রাম করে শর্করাজাতীয় খাবার খেতে পারেন আর রাতে ৮-১৪ ঘণ্টা খালি পেটে সকালে রক্তের নমুনা দেবেন এবং ৭৫ গ্রাম গ্লুকোজ খাবার ১২০ মিনিটের মাথায় আবার রক্তের নমুনা দেবেন। ৭৫ গ্রাম গ্লুকোজ খেতে ৫ মিনিটের বেশি সময় নেবেন।

পরীক্ষার ফলাফল বিশ্লেষণ

           খালি পেটে সুগার ৬.১ মিলি মোল/লিটারের কম আর ৭৫ গ্রাম গ্লুকোজ খাওয়ার ২ ঘণ্টা পর ৭.৮ মিলি মোল/লিটারের কম থাকলে বুঝবেন আপনার ডায়াবেটিস হয়নি।

           খালি পেটে স্যুগার ৬.১ মিলি মোল/লিটার থেকে ৬.৯ মিলি মোল/লিটার আর ৭৫ গ্রাম গ্লুকোজ খাওয়ার ২ ঘণ্টা পর ৭.৮ মিলি মোল/লিটারের কম থাকলে বুঝবেন আপনার ডায়াবেটিস হওয়ার ঠিক আগের অবস্থায় আছেন।

           খালি পেটে স্যুগার ৭ মিলি মোল/লিটারের কম আর ৭৫ গ্রাম গ্লুকোজ খাওয়ার ২ ঘণ্টা পর ৭.৮ মিলি মোল/লিটার থেকে ১১.১ মিলি মোল/লিটারের কম থাকলে বুঝবেন আপনার ডায়াবেটিস হওয়ার ঠিক আগের অবস্থায় আছেন।

           খালি পেটে স্যুগার ৭ মিলি মোল/লিটারের বেশি কিংবা ৭৫ গ্রাম গ্লুকোজ খাওয়ার ২ ঘণ্টা পর ১১.১ মিলি মোল/লিটারের বেশি থাকলে বুঝবেন আপনার ডায়াবেটিস হয়েছে।

ডায়াবেটিস রোগী কিংবা যারা ডায়াবেটিস নিয়ে সচেতন তাদের বেশির ভাগ সব সময় একটি বিষয় নিয়ে বিভ্রান্ত হন, সেটি হলো ডায়াবেটিস সম্পর্কিত রক্তের পরীক্ষাগুলো নিয়ে। ডায়াবেটিস বর্ডার লাইনে তারা কী পরীক্ষা করবেন, ডায়াবেটিস আক্রান্ত এবং ওষুধ কিংবা ইনসুলিন নিচ্ছেন তারা কী পরীক্ষা করাবেন। একজন সচেতন মানুষ তার ডায়াবেটিস হওয়ার কিংবা রক্তের সুগারের পরিবর্তন দেখতে চান তিনি কী পরীক্ষা করাবেন তা নিয়ে সব সময় চিন্তিত থাকতে হয়। তাদের বিভ্রান্তি দূর করবে আশা করি এই তথ্য।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত