মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

জঙ্গি নাটকে লাভ হবে না জনগণ সব বোঝে : ফখরুল

আপডেট : ২২ নভেম্বর ২০২২, ০২:০৭ এএম

আগামী ১০ ডিসেম্বর রাজধানী ঢাকায় বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশ সামনে রেখে সরকারকে বিভিন্ন ‘হাস্যরসমূলক’ কর্মকা- থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘জঙ্গি নাটক খেলা খেলে লাভ হবে না। জনগণ এখন আর বোকা নেই, তারা সব বোঝে। পুলিশের কাছ থেকে জঙ্গি ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় জনগণের মনে প্রশ্ন তৈরি হয়েছে।’

গতকাল সোমবার বিকেলে রাজধানীর গুলশানে দলের চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক জরুরি সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

ঢাকার সমাবেশ সামনে রেখে সরকারের শুভবুদ্ধির উদয় হবে এমন আশাবাদ ব্যক্ত করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘বিএনপির বিভাগীয় সফল সমাবেশগুলো দেখে সরকার ভীত-সন্ত্রস্ত হয়ে পড়েছে। ১০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য ঢাকার সমাবেশ ব্যাহত করতে সরকার মিথ্যা ও গায়েবি মামলা দায়ের করছে। গত ২২ আগস্ট থেকে ২১ নভেম্বর পর্যন্ত সারা দেশে ৯৬টি মামলা করেছে পুলিশ, ৪ হাজার ৪১২ জনকে এজাহারভুক্ত আসামি করেছে, ১০ হাজার ৬৬৪ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করেছে, ৪৪৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। যত মামলা-গ্রেপ্তার করা হোক না কেন সমাবেশ বন্ধ করা যাবে না। খুন, গুম করে জনগণের মুক্তির আন্দোলন বন্ধ করা যাবে না। আগামী মহাসমাবেশগুলো নির্ধারিত স্থানেই হবে। তাতে বিগত দিনের সমাবেশগুলোর মতো জনতার ঢল নামবে।’

রক্তের ঋণ পরিশোধ করার জন্য তৈরি হতে হবে : মির্জা ফখরুল:  বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ৫৮তম জন্মদিন উপলক্ষে উত্তরবঙ্গ ও বাংলাদেশ ছাত্র ফোরামের উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভায় মির্জা ফখরুল বলেন, ‘লড়াই শুরু হয়ে গেছে, মানুষ রাজপথে নেমে পড়েছে। এখন আরও শক্তি সঞ্চয় করে নয়ন, শাওন, রহিম, আলিমের রক্তের ঋণ পরিশোধ করার জন্য আমাদের তৈরি হতে হবে। মানুষ কিন্তু পিছিয়ে নেই প্রতিটি সমাবেশে এই বৃদ্ধ বয়সে যা দেখলাম, তা আমাকে অনুপ্রাণিত করেছে। আরেকটি মুক্তিযুদ্ধ করতে হবে, সেই মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়েই অবৈধ সরকারকে পরাজিত করতে হবে।’

ডলার সংকটের প্রসঙ্গ টেনে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হয়েছে, ব্যাংকে গেলে এখন আর এলসি খোলা যায় না। কারণ তাদের ডলার নেই, ডলার দিতে পারছে না। রিজার্ভের টাকা তো লোপাট করেই ফেলেছে এবং এত বেশি লোপাট করে ফেলেছে যে নিজেরাই বলছে রিজার্ভ তো আমরা চিবিয়ে খাইনি। রিজার্ভ তো আপনারা চিবিয়ে খাননি; গিলে ফেলেছেন, পাচার করে দিয়েছেন।’

বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘দেশের সব সম্পদ লুট করছ, ১০ বছরে ৮৬ লক্ষ কোটি টাকা পাচার করেছ। গত এক বছরেই ৭৮ হাজার কোটি টাকা পাচার করেছ। যে দেশের অর্থনীতিতে সরকারের লোকেরা পুরো সম্পদ লুট করে, পাচার করে নিয়ে যায়, সেই দেশের অর্থনীতি কেমন থাকতে পারে?’

সংগঠনের উপদেষ্টা ও বিএনপির সহপ্রচার সম্পাদক আমিরুল ইসলাম খান আলিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় আরও বক্তব্য দেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, বিএনপির মিডিয়া সেলের সদস্য কাদের গনি চৌধুরী, ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন, সাবেক দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সাত্তার পাটোয়ারী প্রমুখ।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত