রোববার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

অ্যাথলেট তুলে আনার উদ্যোগ

আপডেট : ১২ জানুয়ারি ২০২৩, ১১:৩৫ পিএম

১৯৭৩ সালে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উদ্যোগে প্রান্তিক পর্যায় থেকে জাতীয় পর্যায়ে অ্যাথলেট তুলে আনার প্রতিযোগিতা হয়েছিল। সেই উদ্যোগ অবশ্য বেশিদিন আলোর মুখ দেখেনি। তবে ৪৯ বছর পর আবারও এই পথে হাঁটতে যাচ্ছে বাংলাদেশ অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশন। দেশব্যাপী শেখ কামাল আন্তঃস্কুল ও মাদ্রাসা অ্যাথলেটিক্স প্রতিযোগিতা শুরু হবে কাল থেকে। বিশাল বাজেটের এই উদ্যোগের মধ্য দিয়ে তৃণমূল থেকে আগামীর শাহ আলম, সুলতানা কামালদের তুলে আনাই এই আসরের মূল লক্ষ্য। প্রায় ২০ লক্ষাধিক ছাত্র-ছাত্রীর মধ্য থেকে সেরাদের তুলে এনে আন্তর্জাতিক পর্যায়ের জন্য গড়ে তোলার পরিকল্পনা ফেডারেশনের।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মুখ্যসচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া বাংলাদেশ অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশনের সভাপতির দায়িত্ব নেন দেড় মাস আগে। গতকাল সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, এই প্রতিযোগিতা হবে চার ধাপে। কাল থেকে ইউনিয়ন ও উপজেলা পর্যায়ে হবে খেলা। চলবে ২৮ জানুয়ারি পর্যন্ত। এরপর জেলা পর্যায়ে ১ থেকে ৫ ফেব্রুয়ারি ও বিভাগীয় পর্যায়ে ৯ থেকে ১৩ ফেব্রুয়ারি হবে এই আসর। পরবর্তী সময়ে বিভাগের সেরাদের নিয়ে হবে চূড়ান্তপর্ব। শিক্ষার্থীদের দুই গ্রুপে বিভক্ত করে হবে আসর। ‘ক’ গ্রুপে ৬ষ্ঠ থেকে ৮ম শ্রেণি (ছাত্র/ছাত্রী) ও খ গ্রুপে হবে ৯ম থেকে ১০ম শ্রেণি (ছাত্র-ছাত্রী)। ‘ক’ গ্রুপে ইভেন্ট চারটি-১০০ ও ২০০ মিটার স্প্রিন্ট ও হাই জাম্প এবং লং জাম্প ইভেন্ট। ‘খ’ গ্রুপে আবার ইভেন্ট বেশি। ১০০, ২০০, ৪০০, ৮০০, ১৫০০ মিটার দৌড়, হাই জাম্প লং জাম্প, ট্রিপল জাম্প, জ্যাভলিন থ্রো, শটপুট, ডিসকাস, ৪ গুণিতক ১০০ মিটার রিলে থাকছে।

তোফাজ্জল হোসেন মিয়া বলেন, ‘পড়াশোনার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের শারীরিক, মানসিক ও নান্দনিক বিকাশসহ প্রতিযোগী মনোভাব গড়ে তোলার মাধ্যমে দেশব্যাপী একটি ক্রীড়া আন্দোলন সৃষ্টির লক্ষ্যে স্কুল ও মাদ্রাসা অ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতা নিয়মিত আয়োজন করা প্রয়োজন। ভবিষ্যতের সুনাগরিক হিসেবে প্রতিষ্ঠার জন্য এমন আয়োজন হচ্ছে। এর মাধ্যমে ক্রীড়াক্ষেত্রে এক অনবদ্য প্রাণচাঞ্চল্য ও প্রণোদনা সৃষ্টি করবে বলে আমরা মনে করছি।’

এই উদ্যোগে প্রধান পৃষ্ঠপোষক হিসেবে থাকছে ওয়ালটন গ্রুপ। গতকাল সংবাদ সম্মেলনে যুব ও ক্রীড়া সচিব ড. মহিউদ্দিন আহমেদ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটন গ্রুপের ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর হুমায়ুন কবির।

   
সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত