বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

চট্টগ্রামে দুই পাহাড়ি কিশোরীকে হত্যায় যুবকের মৃত্যুদণ্ড

আপডেট : ২৫ জানুয়ারি ২০২৩, ০৬:২১ পিএম

চট্টগ্রামে দুই পাহাড়ি কিশোরীকে হত্যার ঘটনায় আবুল হোসেন (৩৩) নামের এক যুবককে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (২৫ জানুয়ারি) দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক আলীম উল্ল্যাহ আসামির উপস্থিতিতে এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি আবুল হোসেন সীতাকুণ্ড থানাধীন চৌধুরীপাড়া এলাকার মো. ইসমাইলের ছেলে।

দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বেঞ্চ সহকারী আবু সাঈদ বিষয়টি নিশ্চিত করে দেশ রূপান্তরকে বলেন, ২০১৮ সালে ১৮ মে সীতাকুণ্ডের জঙ্গল মহাদেবপুর ত্রিপুরা পাড়ায় উপজাতি কিশোরী সকলতি ত্রিপুরা (১৭) ও সবিরানী ত্রিপুরাকে(১৬) হত্যার অপরাধে আসামি আবুল হোসেনের ৩০২/৩৪ ধারায় মৃত্যুদণ্ড ও ১ লাখ টাকা জরিমানা প্রদান করেন আদালত। একই মামলায় অপরাধ প্রমাণিত না হওয়ায় অপর আসামি ওমর হায়াত মানিককে খালাস প্রদান করেন আদালত।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১৮ সালে ওই হত্যার ঘটনায় আবুল হোসেনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাতনামা তিনজনকে আসামি করে সীতাকুণ্ড থানায় মামলা হয়। মামলার তদন্তকালীন সময়ে এই মামলায় রাজীব নামের এক আসামি দুষ্কৃতিকারীদের গুলিতে মারা যায়। পরে তদন্ত কর্মকর্তা আবুল হোসেন ও ওমর হায়াত মানিককে আসামি করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।

মামলা নথি থেকে জানা যায়, ঘটনার দিন বাসায় নিহতের পরিবারের কেউ না থাকার সুযোগে ঘরে ঢুকে দুই উপজাতি কিশোরীকে শ্বাসরোধে হত্যা করেন আসামিরা। পরে তাদের গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যার ঘটনা সাজায়। আসামি আবুল হোসেন বিভিন্ন সময় ত্রিপুরা পল্লীতে গিয়ে সুকলতি ত্রিপুরাকে উত্ত্যক্ত করতেন। ওই ঘটনায় স্থানীয়ভাবে সালিশ ডেকে আবুল হোসেনকে ভৎসনা করা হয়। তাতে ক্ষিপ্ত হয়ে সহযোগীদের নিয়ে সুকলতিকে শ্বাসরোধে হত্যা করে আসামিরা। হত্যার ঘটনা পাশের বাড়ির সবিরানী ত্রিপুরা দেখে ফেলায় তাকেও হত্যা করা হয়।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত