রোববার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

হত্যা মামলা

বাবা-মা-ছেলের যাবজ্জীবন

আপডেট : ৩১ জানুয়ারি ২০২৩, ০৬:২৪ পিএম

কক্সবাজারের টেকনাফে আব্দুল করিম নামের এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা মামলায় বাবা-মা ও ছেলেকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। এ সময় প্রত্যেক আসামিকে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা এবং অনাদায়ে আরও এক বছর কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়।

বুধবার দুপুরে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ (পঞ্চম আদালত) নিশাত সুলতানার আদালত এ রায় ঘোষণা করেন।

সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের উত্তর শিলখালী এলাকার মো. মকবুলের ছেলে মো. মঞ্জুর, তার ছেলে মো. ফোরকান ও স্ত্রী আমিনা খাতুন। রায় ঘোষণার সময় মো. মঞ্জুর ও আমিন খাতুন আদালতে উপস্থিত থাকলেও অপর আসামি মো. ফোরকান পলাতক।

মামলার নথির বরাত দিয়ে কক্সবাজারের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) ফরিদুল আলম বলেন, ২০১৯ সালের ২৭ আগস্ট সন্ধ্যায় টেকনাফের বাহারছড়া ইউনিয়নের উত্তর শিলখালী এলাকায় নিজের বসত ভিটায় মুরগির ঘর দেখাশোনা করছিলেন আব্দুল করিম। এ সময় পূর্বপরিকল্পিতভাবে আসামিরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে তাকে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে (চমেক) প্রেরণ করেন। ঘটনার পরদিন (২৮ আগস্ট) সকালে চমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আব্দুল করিম মারা যান।

রাষ্ট্রপক্ষের এ আইনজীবী বলেন, গত ২০১৯ সালের ২৯ আগস্ট ঘটনায় নিহতের স্ত্রী খুরশিদা বেগম বাদী হয়ে মো. ফোরকান, তার বাবা মো. মঞ্জুর ওরফে কল ও মা আমিনা খাতুনকে আসামি করে টেকনাফ থানায় মামলা দায়ের করেন। পরে গত ২০২১ সালের ১৮ জানুয়ারি মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আদালতে চার্জশিট জমা দেন। এ নিয়ে গত ২০২১ সালের ১৭ অক্টোবর আদালত আসামিদের বিরুদ্ধে বিচার শুরুর (চার্জ গঠন) আদেশ দেন।

ফরিদুল বলেন, বুধবার দীর্ঘ বিচারিক প্রক্রিয়া শেষে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় প্রত্যেককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড, এক লাখ টাকা করে জরিমানা এবং অনাদায়ে আরও এক বছর কারাদণ্ডাদেশ দেন আদালত।

   
সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত