বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

আর্থারকে ফেরানোর সিদ্ধান্ত পাকিস্তান ক্রিকেটকে ‘থাপ্পড়’ বলে মত মিসবাহর

আপডেট : ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০৭:৩৫ পিএম

মিকি আর্থারকে পিসিবি কোচ হিসেবে পুনরায় ফিরিয়ে আনায় বিষয়টিকে ‘পাকিস্তান ক্রিকেটের উপর চপেটাঘাত’ হিসেবে দেখছেন মিসবাহ-উল-হক। নাজাম শেঠি দেশটির ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান হিসেবে ফিরে আসার পর কোচিং প্যানেলেও হাত দিয়েছেন। তারই অংশ হিসেবে এই দক্ষিণ আফ্রিকানকে ফিরিয়ে আনছেন।

পাকিস্তান ক্রিকেটে প্রথমবার কোচ হিসেবে মিকি আর্থার আসেন ২০১৬ সালে। ২০১৯ পর্যন্ত তিনি দলটির কোচ ছিলেন তিনি। তবে এবার আর প্রধান কোচ হিসেবে আসা হচ্ছে না তা। ইএসপিএনক্রিকইনফো তাদের এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, পাকিস্তান ক্রিকেটের টিম ডিরেক্টর হিসেবে আসছেন তিনি।

আর তাতেই চটেছেন মিসবাহ। দেশটির সাবেক অধিনায়ক ও কোচ মনে করছেন, এই সিদ্ধান্তে সাবেক ক্রিকেটারদের যোগ্যতার ওপর অনাস্থার পরিচয় দিয়েছে বোর্ড।

ক্রিকইনফোকে মিসবাহ বলেছেন, ‘পিসিবি সবসময় বিদেশী কোচের ওপর আস্থা দেখায়। কারণ তারা মনে করেন দেশী কোচদের নিয়ে রাজনীতি করা যায়। এছাড়া স্থানীয় কোচদের বোর্ড অযোগ্য বলেও মনে করে। কিন্তু বোর্ডই তো আমলাতন্ত্রের রাজনীতির ওপর ভিত্তি করে দাঁড়িয়ে। তার সময়ে স্থানীয় কোচদের পিসে ফেলতেও দ্বিধাবোধ করে না।’

এই পরিস্থিতির জন্য অবশ্য প্রাক্তন ক্রিকেটারদের দায়ী করেছেন মিসবাহ। তিনি বলেছেন, ‘পাকিস্তানের বেশিরভাগ সাবেক ক্রিকেটার এখন ক্রিকেটের সঙ্গে সম্পৃক্ত নন। তারা এখন নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেল নিয়ে ব্যস্ত। সেখানে তারা অনেক সময় অন্যান্য ক্রিকেটারদের নিয়ে সমালোচনা করেন। এখন আমরা এক ক্রিকেটার অন্য ক্রিকেটারকে সম্মান দেই না। যার সুযোগ নেই অন্যরা। ফলে বোর্ডও আস্থা দেখায় বিদেশী কোচদের ওপর।’

আর সেই সুযোগটাই নাজাম শেঠির নেতৃত্বাধীন বোর্ড নিচ্ছে বলে মনে করছেন মিসবাহ, ‘আমাদের সম্মান না করার সংস্কৃতির কারণে স্থানীয় কোচদের ওপর ভরসা রাখা হয় না। ফলে নিয়ে আসা হয় বিদেশীদের। যা পাকিস্তান ক্রিকেটের ওপর চপেটাঘাত বলেই আমি মনে করি।’

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত