সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

শিশুদের সচেতনতা বাড়াতে লিখি

আপডেট : ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০২:২১ এএম

শিশুদের নিরাপদে বেড়ে ওঠার জন্য পরিবারের সহায়তা ও বই পড়ার বিকল্প নেই। অন্যদিকে পরিবারের পর শিশুদের মানসিক বিকাশে অবদান রাখতে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেন শিশুসাহিত্যিকরা। এবারের মেলায় শিশুদের বেশকিছু বই এরই মধ্যে প্রকাশিত হয়েছে।

প্রায় এক যুগ ধরে শিশুদের জন্য লিখছেন শিশুসাহিত্যিক আশিক মুস্তাফা। গল্প-অনুবাদ-ভ্রমণ কাহিনী-কমিকসসহ তার চল্লিশটি বই প্রকাশিত হয়েছে। পেয়েছেন অগ্রণী ব্যাংক-শিশু একাডেমি শিশুসাহিত্য পুরস্কার, ইউনিসেফ থেকে মীনা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড এবং কবি হাবীবুর রহমান সাহিত্য পুরস্কার। স্কুলে বন্ধুদের সঙ্গে ঝগড়ার পরে মাঠে খেলার সুযোগ থেকে বঞ্চিত হওয়া রোধ করতে এবার সচেতনতামূলক বই ‘তারা খেলে মিলেমিশে’ লিখেছেন এই খ্যাতনামা তরুণ। তিনি দেশ রূপান্তরকে বলেন, ‘সবসময় চেষ্টা করি শিশুদের জন্য লেখা বইগুলো যেন সচেতনতামূলক হয়। এবার তিনটি বই লিখেছি। তার মধ্যে সেভ দ্যা চিলড্রেন প্রকাশ করেছে ‘তারা খেলে মিলেমিশে’। এই বই লেখা হয়েছে, বাচ্চা যখন স্কুলে যায় তখন তাদের বন্ধুদের সঙ্গে ঝগড়া হওয়ার ফলে তারা খেলার মাঠে একে অন্যের সঙ্গে বিরূপ আচরণ করে। যখনই একটা শিশু তার শৈশবেই এভাবে বঞ্চিত হওয়ার বেদনায় জর্জরিত হয়, তখনই সেই শিশু মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে। আর এসব কাজ আমাদের শিশু ও সমাজের জন্য অনেক বড় হুমকি।’

এ ছাড়া  ‘শৈশব’ প্রকাশ করেছে আশিক মুস্তাফার বই ‘জুটুন মামার বাঘযাত্রা’। পাঁচটি গল্প দিয়ে সাজানো হয়েছে এই বই। আশিক মনে করেন, ‘এ বইয়ের গল্পগুলো ছোটদের ভাবনার খোরাক হবে, তাদের সৃজনশীল চিন্তাভাবনায় সহায়ক হবে গল্পগুলো।’

বাচ্চাদের এক প্রিয় জুটন মামা, আশিকের প্রধান চরিত্র এই বইয়ে। বাচ্চারা তার কাছে নানা রকম গল্প শুনতে চায়। সেরকমই একটি মজার গল্প সুন্দরবন যাত্রা। সেখানে বাঘ শিকারে গিয়ে মামা ভয় পেয়ে পালিয়ে এসেছে। 

আশিক মুস্তাফার তৃতীয় বইটি এনেছে পাঞ্জেরী, এটি কমিকস। জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের জীবন নিয়ে শিশুদের উপযোগী জীবনী, বিদ্রোহী নজরুল। 

শিশুদের বই পড়ার ক্ষেত্রে কোন দিকগুলো গুরুত্বপূর্ণ জানতে চাইলে শিশুসাহিত্যিক আশিক মুস্তাফা বলেন, পরিবারের ওপর নির্ভর করে কোনো শিশু কোন ধরনের সাহিত্য পড়বে। তবে পরিবারের বড়রা যেন দেশপ্রেম,  ভাষা আন্দোলনসহ অন্য গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে গল্পের ছলে লেখা বইগুলো বাচ্চাদের কিনে দেন। অনেক সময় শিশুরা বইয়ের মলাট দেখে তা কিনতে চাইবে। তবে এই ক্ষেত্রে বাবা-মা যেন সতর্ক থাকেন, সে অনুরোধ করেন আশিক মুস্তাফা।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত