মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

সায়েন্স ফিকশনে আগ্রহ তরুণদের

আপডেট : ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ০৪:১৩ এএম

অমর একুশে বইমেলা মানেই বিভিন্ন ধরনের হাজারও নতুন বইয়ের সমারোহ। আর এ সমারোহে তরুণদের পছন্দের শীর্ষে বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী (সায়েন্স ফিকশন)। বর্তমানে তরুণদের বড় অংশ ঝুঁকছে ফিকশনধর্মী বইয়ের দিকে। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, সমাজব্যবস্থার পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে দেখা মানুষের রুচিবোধ, চিন্তা-চেতনাতে বড় ধরনের পরিবর্তন এসেছে। এরই অংশ হিসেবে এখন তরুণদের সায়েন্স ফিকশনে আগ্রহ বাড়ছে। প্রকাশকরা জানান, গত কয়েক বছর ধরে লক্ষ করা যাচ্ছে, প্রতি বছরই তরুণদের মধ্যে বিজ্ঞানমুখী বই কেনার প্রবণতা বাড়ছে। আর এ চাহিদাকে মাথায় রেখে লেখকরাও বিজ্ঞানধর্মী বই লেখালেখিতে আলাদা গতি এনেছেন।

বর্তমান সময়ের বিজ্ঞানলেখক আনিস আহমেদ বলেন, বর্তমান তরুণরা বিজ্ঞানের দিকে ধাবিত হচ্ছে এটি ইতিবাচক। এ ধারা আগামী দিনে আরও বাড়বে।

অমর একুশে বইমেলায় আসা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ইয়াছির রহমান রুদ্রের সঙ্গে কথা হয় দেশ রূপান্তরের। তিনি বলেন, বর্তমানে তথ্যপ্রযুক্তি ও বিজ্ঞাননির্ভর যুগ। উন্নত বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে আমাদের অবশ্যই বিজ্ঞানমনস্ক হতে হবে। তাই আমি বরাবরের মতো এবারও সায়েন্স ফিকশনের বই কিনছি।

মেলায় সায়েন্স ফিকশনের বই কিনছিলেন রাজধানীর নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থী ইমতিয়াজ আহমেদ। তিনি দেশ রূপান্তরকে বলেন, সায়েন্স ফিকশনের মাধ্যমে খুব সহজেই কঠিন কঠিন বিজ্ঞানের বিষয়ে সহজেই বুঝতে পারা যায়। এ জন্যই ছোটবেলা থেকেই এ ধরনের বই পড়ি। আমার প্রিয় লেখকদের অধিকাংশই সায়েন্স ফিকশনের বই লেখেন।

নতুন বই : গতকাল ছিল অমর একুশে বইমেলার ষষ্ঠ দিন। মেলা শুরু হয় বেলা ৩টায়, চলে রাত ৯টা পর্যন্ত। নতুন বই এসেছে ১২১টি। বিকেল ৪টায় বইমেলার মূলমঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় কাজী রোজী এবং দিলারা হাশেম স্মরণ শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন নাসির আহমেদ এবং তপন রায়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অসীম সাহা।

প্রাবন্ধিকদ্বয় বলেন, কবি, গীতিকার, নাট্যকার, গল্পকার কাজী রোজী আমাদের সাহিত্য-সংস্কৃতি অঙ্গনের এক প্রগতিশীল সাহসী নারী, সদা প্রাণোচ্ছল এক লড়াকু জীবনযোদ্ধা। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ থেকে শুরু করে সব প্রগতিশীল আন্দোলন-সংগ্রামে সম্মুখসারির কর্মী ছিলেন তিনি। অন্যদিকে বাংলাদেশের খ্যাতিমান ঔপন্যাসিকদের মধ্যে দিলারা হাশেম একটি বিশিষ্ট নাম। ঔপন্যাসিক, ছোটগল্পকার, কবি, অনুবাদক, সংবাদ পরিবেশক, সংগীতশিল্পী ইত্যাদি নানা অভিধায় তাকে অভিহিত করা যায়। তিনি মূলত নগরজীবন ও বাংলাদেশের মধ্যবিত্ত সমাজের সুখ-দুঃখ, স্বপ্ন-সাধ, ভালোবাসা, হতাশ ও জীবনের বাস্তবতা তার সাহিত্যে তুলে এনেছেন।

আলোচকরা বলেন, কবি কাজী রোজী বাংলা সাহিত্যজগতে যেমন তার প্রতিভার নজির রেখেছেন, তেমনি বাংলাদেশের স্বাধিকার আন্দোলনে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করেছেন। শুধু সাহিত্যই নয়, কাজী রোজী আমাদের সামনে সাহসী জীবনের আদর্শও রেখে গেছেন। অন্যদিকে স্বাধীনতা-পূর্ববর্তী ও পরবর্তী বাংলা সাহিত্য জগতে অক্ষয় এক নাম দিলারা হাশেম। তার সাহিত্যের একটি বিশেষ বৈশিষ্ট্য হলো, নারীর দৃষ্টি দিয়ে তিনি ব্যক্তি ও সমাজকে দেখেছেন। নারীর সামাজিক অবস্থান ও পরিবেশ, লড়াই-সংগ্রাম-লাঞ্ছনা, অবমাননা প্রভৃতি তার লেখায় মূর্ত হয়ে উঠেছে।

সভাপতির বক্তব্যে অসীম সাহা বলেন, জীবনের নানা উত্থান-পতনের মধ্য দিয়ে কাজী রোজী যে নিরন্তর সংগ্রাম চালিয়েছেন, তাতে তিনি সফল হয়েছেন। জীবনের অন্তর্গত রহস্য ও নিম্নশ্রেণির মানুষের সংগ্রাম দিলারা হাশেমের সাহিত্যকর্মে উঠে এসেছে। আমাদের উচিত যথাসময়ে তাদের মতো গুণী মানুষের কাজের স্বীকৃতি ও সম্মান প্রদর্শন।

গতকাল ‘লেখক বলছি’ অনুষ্ঠানে নিজেদের নতুন বই নিয়ে আলোচনা করেন মোজাম্মেল হক নিয়োগী, রহীম শাহ, সত্যজিৎ রায় মজুমদার এবং তুষার কবির।

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে কবিতা পাঠ করেন কবি মাহবুব সাদিক, ফারুক মাহমুদ এবং আতাহার খান। আবৃত্তি পরিবেশন করেন আবৃত্তিশিল্পী ভাস্বর বন্দ্যোপাধ্যায়, মাহিদুল ইসলাম এবং অনন্যা লাবনী। এ ছাড়া ছিল সাইমন জাকারিয়ার পরিচালনায় সাংস্কৃতিক সংগঠন ‘ভাবনগর ফাউন্ডেশন’-এর পরিবেশনা। সংগীত পরিবেশন করেন শিল্পী আজগর আলীম, আবুবকর সিদ্দিক, বিমান চন্দ্র বিশ্বাস, রহিমা খাতুন, শান্তা সরকার। যন্ত্রানুষঙ্গে ছিলেন আব্দুল আজিজ (তবলা), ডালিম কুমার বড়–য়া (কিবোর্ড), অরূপ কুমাল শীল (দোতারা) এবং মো. শহিদুল ইসলাম (বাঁশি)।

আজকের সময়সূচি : আজ ৭ ফেব্রুয়ারি অমর একুশে বইমেলার সপ্তম দিন। মেলা শুরু হবে বেলা ৩টায়, চলবে রাত ৯টা পর্যন্ত।

আলোচনা অনুষ্ঠান : বিকেল ৪টায় বইমেলার মূলমঞ্চে অনুষ্ঠিত হবে স্মরণ : মাহবুব তালুকদার এবং স্মরণ আলী ইমাম শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন গাজী রহমান ও আহমাদ মাযহার। আলোচনায় অংশগ্রহণ করবেন লুৎফর রহমান রিটন, ড. নিমাই মন্ডল, আমীরুল ইসলাম এবং ওমর কায়সার। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন ফরিদুর রেজা সাগর।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত