বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণে ৫ সবজি

আপডেট : ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১১:৫৩ পিএম

ক্যানসারের পাশাপাশি বাড়ছে কোলেস্টেরল আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। সাধারণত বয়স বাড়ার সঙ্গে এই রোগ বাসা বাঁধে শরীরে। অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাপন, অনিয়মিত খাওয়া-দাওয়া এবং আরও বিভিন্ন কারণে রক্তে কোলেস্টেরল মাত্রা বাড়ে। কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে না রাখলে সমস্যা। কারণ এই রোগের হাত ধরেই আরও অনেক সমস্যার জন্ম নেওয়ার আশঙ্কা থেকে যায়। কাঁড়ি কাঁড়ি ওষুধ খেয়ে অনেক সময় কোলেস্টেরলের মাত্রা কমানো সম্ভব হয় না। তবে কয়েকটি সবজি আছে, যেগুলো পাতে রাখলে কোলেস্টেরলের মাত্রা কমবে।

ব্রোকলি : শরীরের খেয়াল রাখতে ব্রোকলির জুড়ি মেলা ভার। প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো থেকে শুরু করে সংক্রমণের ঝুঁকি কমানোÑব্রোকলি সবেতেই এগিয়ে। ফাইবার, সালফার-সমৃদ্ধ ব্রোকলিতে রয়েছে কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণের ক্ষমতা।

পালং শাক : পটাশিয়াম, ফাইবার, ফোলেট, ক্যালসিয়ামে সমৃদ্ধ পালং শাক কোলেস্টেরল কমাতে দারুণ উপকার। খারাপ কোলেস্টেরল নামে পরিচিত এলডিএল। পালং শাক খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে সাহায্য করে।

ফুলকপি : অ্যান্থোসায়ানিনে সমৃদ্ধ উৎস হলো ফুলকপি। এই অ্যান্থোসায়ানিন খারাপ কোলেস্টরল এলডিএলের মাত্রা কমিয়ে দেয়। ফলে কোলেস্টেরল যদি সহজে পিছু না ছাড়ে, সে ক্ষেত্রে অবশ্যই রোজের পাতে রাখুন ফুলকপি।

মুলো : ফুলকপির মতো মুলোতেও রয়েছে ভরপুর পরিমাণে অ্যান্থোসায়ানিন। ফলে কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে চাইলে অতি অবশ্যই মুলো খাওয়া জরুরি। অনেকেই মুলো খেতে চান না। কিন্তু কোলেস্টেরল থাকলে ইচ্ছা না করলেও মুলো খেতে পারেন।

গাজর : শীতকালে শরীরের যত্ন নিতে গাজরের মতো উপকারী সবজি খুব কম রয়েছে। কোলেস্টেরলের সমস্যা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে যারা ভুগছেন, গাজর তাদের সাহায্য করতে পারে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত