বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

বই লিখে গিনেস বুকে ৪ বছরের শিশু

আপডেট : ০১ এপ্রিল ২০২৩, ০৭:৪৪ পিএম

বিশ্বের সর্বকনিষ্ঠ লেখক হিসেবে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে নাম লিখিয়েছে চার বছর ২১৮ দিন বয়সী এক শিশু। সংযুক্ত আরব আমিরাতের এই খুদে লেখকের নাম সাঈদ রাশেদ আলমেহরি। শুক্রবার (৩১ মার্চ) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে দুবাইভিত্তিক সংবাদমাধ্যম খালিজ টাইমস।

প্রতিবেদনে বলা হয়, সাঈদের প্রকাশিত বইয়ের নাম ‘দ্য এলিফ্যান্ট সাইদ অ্যান্ড দ্য বিয়ার।’ রাগের পরিবর্তে কোমলতার জয় হওয়া এবং দুটি প্রাণির মধ্যে আকস্মিক বন্ধুত্ব তৈরি হওয়ার বিষয়টি ওঠে এসেছে তার গল্প বইয়ে।

সাঈদের গল্পের বিষয়ে তার মা মাওজা আল দারমিকি বলেন, ‘সে যখন আমাদের কাছে গল্পটি বলে আমরা সবাই আশ্চর্য হয়ে গিয়েছিলাম। তার (সাঈদের) গল্প কিভাবে বলতে হয় এবং গল্পের মাধ্যমে সে কি বার্তা মানুষের কাছে পৌঁছাতে চায় সে বিষয়ে পরিষ্কার ধারণা ছিল।’

অবশ্য সাঈদ কেবল গল্পের বইটি লিখেই ক্ষান্ত হয়নি। বইটির প্রচ্ছদও এঁকেছে সে। সাইদ বলেছে, ‘আমি বইটি লিখেছি এবং এটি ছিল খুবই সহজ কাজ।’

সাঈদ জানিয়েছে, এই কাজে তাকে সাহায্য করেছে তার ৮ বছর বয়সী বড় বোন। সে বলেছে, ‘আমি আমার বোনকে খুব ভালোবাসি। আমি সব সময় তার সাথে খেলতে পছন্দ করি। আমরা একসঙ্গে পড়ি, লিখি, আঁকি এবং আরো অনেক কাজ করি। তার অনুপ্রেরণায় আমি বইটি লিখেছি।’

সাঈদের মা মাওজার মতে, সাঈদ খুবই প্রাঞ্জল ভাষায় লিখেছে বইটি। গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসের পর্যবেক্ষকরা বইটিকে পুঙ্খানুপুঙ্খরূপে যাচাই করে দেখেছেন এবং মার্চ মাসের শুরুতেই সাঈদের বিশ্ব রেকর্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সাঈদের বইটি প্রকাশিত হওয়ার পর আল-আইন একাডেমির সহায়তায় একটি বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল শিশুরা। সেখানে তার বন্ধু ও সহপাঠীরা বইটি কেনার সুযোগ পায়। সাঈদের বইটি এরইমধ্যে ১ হাজার কপি বিক্রি হয়েছে বলে জানিয়েছে খালিজ টাইমস।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত