সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

শীতে যে কারণে খাবেন সবুজ মটরশুটি

আপডেট : ১৩ জানুয়ারি ২০২৪, ০৮:৫৯ পিএম

শীতের বাজারে প্রচুর পরিমাণে সবুজ মটরশুটি পাওয়া যায়। একে ফ্রেঞ্চ বিনসও বলা হয়। মটরশুটি প্রায়ই নুডুলস, পাস্তা বা সালাদে খাওয়া হয়। কিন্তু এটি প্রতিদিন খাওয়া হলে তা স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী। মটরশুটি হলো ভিটামিন সি, বিটা ক্যারোটিন এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ এমনই একটি সস্তা এবং উপকারী সবজি। যা নানান রোগ প্রতিরোধে সাহায্য করে।

ক্ষতিকর কোলেস্টেরল কমায়

প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় সবুজ মটরশুটি অন্তর্ভুক্ত করা হলে তা শরীরে খারাপ কোলেস্টেরলের পরিমাণ বাড়াতে বাধা দেয়। আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশনের মতে, মটরশুটিতে উপস্থিত উচ্চ পরিমাণ প্রোটিন এবং ফাইবার কোলেস্টেরলের মাত্রা কমায়।

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখে

সবুজ মটরশুটিতে প্রচুর পরিমাণে ফোলেট এবং পটাশি যার কারণে এটি রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। এটি হার্টের স্বাস্থ্যেরও উন্নতি করে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়

মটরশুটিতে রয়েছে ভিটামিন সি এবং বিটা ক্যারোটিনের মতো উপাদান। যা শরীরের রোগের সাথে লড়াই করার ক্ষমতাকে প্রভাবিত করে এবং রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে শক্তিশালী করে।

অস্ত্রের স্বাস্থ্যের উন্নতি করে

যদি প্রতিদিন সবুজ মটরশুটি খাওয়া হয় তবে এতে উপস্থিত ফাইবার কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে এবং অন্ত্রের স্বাস্থ্যের উন্নতি করে। আমেরিকান হার্ট অ্যাসোসিয়েশনের মতে, এটি কোলন ক্যান্সারের ঝুঁকিও কমায়।

ওজন কমাতে সাহায্য

আপনি যদি ওজন কমানোর জন্য আপনার খাদ্যতালিকায় শাকসবজি এবং সালাদ অন্তর্ভুক্ত করেন, তাহলে অবশ্যই মটরশুটি যোগ করতে হবে। এটি ফাইবার এবং প্রয়োজনীয় পুষ্টির কারণে ওজন কমাতে সাহায্য করে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো সি ফাইবারের উপস্থিতির কারণে, মটরশুটি খেলে অনেকক্ষণ পেট ভরা থাকে।

ডায়াবেটিসেও উপকারী

ডায়াবেটিস রোগীরা শাকসবজিতে সবুজ মটরশুটি অন্তর্ভুক্ত করা যেতে পারে। উচ্চ পরিমাণে ফাইবার এবং কার্বোহাইড্রেটের অভাব এটি ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য উপকারী।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত