শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ৬ বৈশাখ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

জাতীয় ক্রিকেটে চ্যাম্পিয়ন বরগুনা

আপডেট : ০২ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:৪৫ পিএম

কক্সবাজারের শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের একাডেমি মাঠে অনুষ্ঠিত ৪২তম জাতীয় ক্রিকেট চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা ঘরে তুলেছে বরগুনা জেলা। তিন দিনের ফাইনাল ম্যাচের শেষ দিনে তারা ৭ উইকেটে হারায় ময়মনসিংহ জেলাকে। 

রবিবার শুরু হওয়া ফাইনালে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নামে ময়মনসিংহ। বরগুনার মোজাম্মেল হাসান শাকিলের বোলিং তোপে প্রথম ইনিংসে মাত্র ১৭৭ রানে অলআউট হয় ময়মনসিংহ। শাকিল ৫ উইকেট শিকার করেন। সর্বোচ্চ ৩৮ রান করেন আসাদুজ্জামান প্রিন্স।

নিজেদের প্রথম ইনিংসে ঋত্বিক রায়ের সেঞ্চুরি এবং রিজভি ও আশফাক আহমেদ জিতুর ফিফটিতে ৭ উইকেটে ৩৪৭ রান বোর্ডে তোলে বরগুনা। ঋত্বিক ১১২ রান করেন। রিজভি আউট হন ৮৬ রানে। জিতু করেন ৫৫ রান। ময়মনসিংহের আজিজুল হাকিম রনি পান ৩ উইকেট।

দ্বিতীয় ইনিংসে ৭ উইকেটে ২৫৮ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করে ময়মনসিংহ। মুসাব্বির হোসাইন মুন অপরাজিত থাকেন ৭১ রানে। সাইফুর সিয়াম ৫৬ ও আশফিকুল আলম মাহিন ৫৪ রান করেন। এতে শেষ ইনিংসে বরগুনার লক্ষ্য দাঁড়ায় ৮৯ রানের। এবার ঋত্বিকের অপরাজিত ৫১ রানের সুবাদে ১৮.২ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় বরগুনা। ঘরে তোলে জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপা।

এবারের জাতীয় ক্রিকেট চ্যাম্পিয়নশিপ হয়েছে তিনটি পর্যায়ে। প্রথম রাউন্ড, দ্বিতীয় রাউন্ড ও ফাইনাল। টায়ার ১ এ ৩২টি ও টায়ার ২ এ ৩২টি দল অংশ নেয়। টায়ার ১ এ ৩২ টি দল ৮টি গ্রুপে বিভক্ত ছিল। প্রতিটি গ্রুপ থেকে একটি দল যায় দ্বিতীয় রাউন্ডে। সেই ৮ দলকে দ্বিতীয় রাউন্ডে ভাগ করা হয় ২টি ভিন্ন গ্রুপে। 

বরগুনা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, সাতক্ষীরা ও রংপুর জেলা ছিল এক গ্রুপে। অন্য গ্রুপে ছিল ময়মনসিংহ, কুষ্টিয়া, ফরিদপুর ও চাঁদপুর জেলা দল। এ গ্রুপ থেকে ৩ ম্যাচের ৩টিতেই জিতে ফাইনালে উঠে বরগুনা। ১ ম্যাচ হারলেও বাকি ২ ম্যাচ জিতে বি গ্রুপ থেকে ফাইনালে ওঠে ময়মনসিংহ। এই নিয়ে ৩য় বার ফাইনালে ওঠে দলটি। গতবারও ফাইনাল খেলেছিল এ দুই জেলা। সেবার যুগ্মভাবে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল দুদল। ৪২তম আসরে ৫ ইনিংসে ৬১.৭৫ গড়ে সর্বোচ্চ ২৪৭ রান এসেছে বরগুনার ঋত্বিক রায়ের ব্যাট থেকে। বরগুনার মোজাম্মেল হাসান শাকিল ৫ ইনিংসে ১৭ উইকেট নিয়ে হয়েছেন সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত