বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

একটি সুইসাইড নোট— 'কেউ দায়ী নয়'

আপডেট : ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ০২:৩৩ পিএম

আমন মৌসুম বৃষ্টিহীন থাকায় ধানের খেতে আস্তানা গাড়ে ইঁদুরের দল। জমিতে গর্ত খুঁড়ে সেখানে পাকা ধানের শীষ কেটে নিয়ে লুকায়। ঘাম ঝরানো পরিশ্রমের ফসল সোনালি ধানের এমন চুরি মেনে নিতে পারে না কৃষক। খেতের ধান ওঠানো শেষে ইঁদুরের পায়ের ছাপ ধরে গর্তের কাছে যায়। কোদাল দিয়ে মাটি খুঁড়ে গর্তে লুকানো মুঠো মুঠো সোনালি ধানের শীষ উদ্ধার করে ক্ষতি পোষায়। 

রাজনৈতিক দুর্বৃত্তায়ন, আইনের শাসনের অভাব ও বিচারকার্যে দীর্ঘসূত্রতা থাকায় একদল লোক ক্ষমতার অপব্যবহার, সিন্ডিকেট, কারসাজি, ঘুষ, দুর্নীতি, কমিশন বাণিজ্য, মজুতদারিসহ নানাভাবে রাষ্ট্র তথা জনগণের সম্পদ কুক্ষিগত করছে। অবিশ্বাস্য অফার কিংবা উচ্চ মুনাফার প্রলোভন দেখিয়ে সাধারণের পকেট কেটে নিচ্ছে। এভাবে দেশের সম্পদ যায় কিন্তু সেই সম্পদ উদ্ধার করে ক্ষতি পোষানোর কোন সাফল্য দেখা যায় না। ফলে সাধারণের ছেঁড়া পকেট জোড়া লাগে না, ইঁদুরেরা ফুলে ফেঁপে উঠলেও বঞ্চিতদের বেঘোরে মরতে হয়। 

এখন সময়টা এমন দাঁড়িয়েছে— কোন কৌশলে একবার অন্যের টাকা নিজের পকেটে আনতে পারলেই হয়ে গেল। স্বেচ্ছায় ফেরত না দিলে বিচার-সালিস, থানা-পুলিশ, আইন-আদালত করেও কিছুতেই টাকা আর ফেরত পাওয়া যায় না। ফলে যে যেভাবে পারছে ফাঁদ তৈরি করে হাতিয়ে নিচ্ছে সাধারণের কষ্টার্জিত টাকা। 

শুধু যুবক, ডেসটিনি ও ইভ্যালির কাছে জনগণের প্রায় দেড় হাজার কোটি টাকা পড়ে আছে। ফেরত এনে ফিরিয়ে দেওয়ার উদ্যোগ আছে নামমাত্র। এর বাইরেও সমবায়ের নামে, ই-কমার্সের নামে, বিদেশে পাঠানোর নামে, অননুমোদিত ব্যাংকিং, জমি/ফ্ল্যাট ক্রয়-বিক্রয়ের নামে কত লোককে নিঃস্ব করা হয়েছে তার ইয়ত্ত্বা নেই। অনেকে জীবনের শেষ সম্বলটুকু বিনিয়োগ করে সর্বস্বান্ত  হয়েছেন। টাকার শোকে আত্মহত্যা কিংবা হার্ট অ্যাটাকে মারা গেছেন। 

সম্প্রতি রাজধানীর আগারগাঁওয়ের তালতলার মসিউর রহমান তার কলেজ পড়ুয়া ছেলেকে হত্যা ও স্কুল পড়ুয়া মেয়েকে হত্যার চেষ্টা করে নিজেও আত্মহত্যা করেছেন। এর আগে নোটে লিখে গেছেন— 'কেউ দায়ী নয়'। 

আসলেই কী তাই! কেউ দায়ী নয়? যে লোক প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে ভুয়া দলিল বানিয়ে তিন কাঠা জমি বিক্রির নামে মসিউর রহমানকে নিঃস্ব করেছে, তার কোন দায় নেই? যে সমাজপতিদের কাছে পাওনা টাকা আদায় করে দিতে ধরনা দিয়ে বারবার ব্যর্থ হয়েছেন তাদের কোন দায় নেই? শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করে যাদের কারসাজিতে মসিউর রহমান সর্বস্বান্ত হয়েছেন তাদের কোন দায় নেই? জনগণের জান-মালের সুরক্ষা দিতে না পারায় সরকারের কোন দায় নেই? 

মসিউর রহমান, আপনি ভুল বলে গেছেন। আপনার কষ্টার্জিত টাকা উদ্ধার করে প্রতারকের শাস্তি নিশ্চিত করতে না পারার দায় সরকারের। শেয়ারবাজারে কারসাজি বন্ধ করে বিনিয়োগকারীদের বিনিয়োগ সুরক্ষিত রাখতে না পারার দায় সরকারের। সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়, ত্রাণ ও পুনর্বাসন মন্ত্রণালয় ইত্যাদি থাকার পরেও একটি স্যাটেল্ড পরিবার না খেতে পেয়ে, জীবনযাত্রার ব্যয় নির্বাহ করতে না পেরে ধ্বংস হয়ে যাওয়ার দায় নিশ্চয়ই কারও আছে। 

রাজনৈতিক সদিচ্ছা ও সদাচার প্রতিষ্ঠা করা, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর আধুনিকায়ন, জনবল ও পেশাদারিত্ব বৃদ্ধি করা, অপরাধীর দ্রুত বিচার নিশ্চিত করা, সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়, ত্রাণ ও পুনর্বাসন মন্ত্রণালয়, কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়গুলোর সেবার বৈচিত্রায়ণের মাধ্যমে সরকার ও দেশ মসিউর রহমানদের পাশে দাঁড়াবে, এই আশা রইল। 

লেখক: শিক্ষক ও লেখক।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত