মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

'আমি যে লেভেলের খেলোয়াড়, সেভাবে পারফর্ম করতে পারিনি'

আপডেট : ২১ মে ২০২৪, ০২:১১ পিএম

আগামী মাস থেকে শুরু হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। বিশ্বকাপের স্কোয়াডে সুযোগ পাওয়া খেলোয়াড়দের নিয়ে ধারাবাহিকভাবে সাক্ষাৎকার প্রচার করে আসছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) তাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজে।

আজ দ্য গ্রিন রেড স্টোরিতে প্রকাশ করা হয়েছে ব্যাটসম্যান লিটন দাসের সাক্ষাৎকার।

সাক্ষাৎকারের শুরুতেই লিটন জানান, ২০২১ ও ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দল যা চেয়েছিল তা করতে পারেনি। 'আমরা যেটা আশা করেছিলাম ২০২১, ২০২২ এ তা করতে পারিনি। ২০২২ এ আমরা ভিন্ন কন্ডিশনে ছিলাম। হয়তো বড় কোন দলের সঙ্গে ম্যাচ জিততে পারিনি তবে খারাপও হয়নি।'

এরপরই ওই দুই বিশ্বকাপে নিজের ফর্ম নিয়েও কথা বলেন লিটন। 'আপ টু দ্য নট মার্ক। আমি যে লেভেলের খেলোয়াড় বা যে পারফর্ম করা উচিত আমার আমি সেটা করতে পারিনি। জিনিষটা যদি এভাবে বলি ১০০ রান না করি আগের দুই বিশ্বকাপে এবার ১০১ করি তার মানে বেটার কিছু করছি সো, যা করি নাই তার থেকে ভালো কিছু করার চেষ্টা করবো।'

টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে সেঞ্চুরি করাটা সহজ নয় লিটনের মতে। তার মতে ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ আর বিশ্বকাপ আলাদা। 'টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে একশো করাটা সহজ নয়। যদিও বিশ্ব ক্রিকেট অন্যভাবে চলতেছে। আমি আইপিএলের কথা বলবো না কারণ ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগটা ভিন্ন। আপনি যদি আন্তর্জাতিক দেখেন বিশ্বকাপে একশো হয়, তবে দুই একটা ব্যাটসম্যান করে। আমাদেরও চান্স আছে, টপ অর্ডারের ব্যাটসম্যানরা ভালো। সেই চেষ্টা আছে, চেষ্টার সবার মধ্যেই থাকবে (সেঞ্চুরি করার)।'

লিটন আলাপে জানিয়েছেন, নিজের খারাপ সময়ে মোটিভেট পান সবার থেকে, আলাদা করে বলেছেন নিজের স্ত্রীর কথা, ‘আমার অনেক মানুষই আছে যে কিনা আমাকে মোটিভেট করে সবসময়। অনেক কোচই আছে যাদের সাথে কথা হয় যারা কিনা আমাকে মোটিভেট করে। আসলে এই সময়ে মোটিভেট করাটা অনেক বড় বিষয়। সবচেয়ে আমার কাছের মানুষ হচ্ছে স্ত্রী। সবসময় আমাকে সাহস দেয়, এর থেকে আর বড় কিছু লাগে না।’

অধিনায়ক শান্তর অধীনে লিটন যাচ্ছেন নিজের তৃতীয় বিশ্বকাপে। এর আগে খেলছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ এবং সাকিব আল হাসানের মতো দুই অভিজ্ঞ অধিনায়কের সঙ্গে। নতুন অধিনায়কত্ব নিয়ে লিটন বললেন, ‘খুবই ভালো শেষ কয়েকটা সিরিজ সে (শান্ত) অধিনায়কত্ব করছে, আমার কাছে খুবই ভালো লাগতেছে। যেহেতু নিউ কামার তার কাছে তিন ফরম্যাটের অধিনায়কত্ব গিয়েছে। ওভারঅল যা দেখছি তাতে মনে হচ্ছে উন্নতি। স্বাভাবিক যে কোনো মানুষের উন্নতির শেষ নেই সে খুব ভালো করছে।’

দুই অভিজ্ঞ ক্রিকেটার সাকিব ও মাহমুদউল্লা রিয়াদকে নিয়েও কথা বলেছেন লিটন। তাদের প্রশংসা করেছেন লিটন। বলেন, 'আমার তো দেখে মনে হয় না সাকিব ভাই অনেক পুরাতন খেলোয়াড়। উনি যেভাবে ব্যবহার করে সবার সাথে, মনে হয় যে খুবই ফ্রেন্ডলি। এটা একটা সবথেকে বড় জিনিস, ইনফ্যাক্ট রিয়াদ ভাইও এখন অনেক ফ্রেন্ডলি। তারা সবাই চেষ্টা করে আমরা তো অনেকদিন ধরে খেলতেছি, নতুন যারা জুনিয়ররা আসতেছে তাদের সাথেও খুবই ফ্রেন্ডলি বিহেভ করছে, তারা যেন কমফোর্ট ফিল করে।'

লিটনের কাছে মনে হয় ২০২২ এর বিশ্বকাপের পর থেকেই দল টি-টোয়েন্টি দলটা ব্যালেন্সড। দল টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে ভালো খেলছে। লিটন বলেন, 'বিশ্বকাপে আলাদা প্রেসার থাকবে, সব দলেরই থাকে। আমরা যদি ভয়-ডরহীন ক্রিকেট খেলতে পারি আমাদের ভালো সুযোগ আছে।'

 

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত