সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ৩ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

প্রধান বিচারপতি বললেন

বিচার কার্যক্রম স্মার্ট করতে হবে

আপডেট : ২৫ মে ২০২৪, ০১:৩৫ এএম

প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান বলেছেন, ‘স্মার্ট বাংলাদেশ করতে হলে বিচার কার্যক্রমও স্মার্ট করতে হবে। স্মার্ট বিচার কার্যক্রম করার ক্ষেত্রে ন্যায়কুঞ্জ প্রতিষ্ঠা একটি সাধারণ পদক্ষেপ মাত্র। সব মানুষেরই আইনের অধিকার নেওয়ার অধিকার রয়েছে।’

গতকাল শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৩টায় দিনাজপুর জেলা জজ আদালত প্রাঙ্গণে ন্যায়কুঞ্জের উদ্বোধন শেষে বিচার বিভাগের কর্মকর্তাদের উদ্দেশে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘বাংলাদেশের মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠার যে আন্দোলন, ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠার যে আন্দোলন, সেই আন্দোলনে বিচার বিভাগ জনগণের সঙ্গে আছে এবং জনগণের অধিকার, ন্যায়ের অধিকার প্রতিষ্ঠিত করার জন্য আমরা যে পদক্ষেপ নিয়েছি, তার প্রাথমিক এবং অত্যন্ত সামান্যতম পদক্ষেপ হলো এ ন্যায়কুঞ্জ।

তিনি বলেন, ‘দিনাজপুরবাসী যারা বিচারাঙ্গনে আসেন এবং বিচারের কাজে আসতে হয় তারা এখানে সামান্য সময়ের জন্য হলো বিশ্রাম নিতে পারবে। এ উদ্যোগটি আল্লাহ কবুল করুন এ আশাবাদ ব্যক্ত করছি। দিনাজপুর বিচার বিভাগ যেন মানুষের কল্যাণে কাজ করতে পারে, মানুষের ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায় কাজ করতে পারে, এ আশা রইল।’

এর আগে ন্যায়কুঞ্জের উদ্বোধন করেন তিনি। এ সময় বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম, জেলা ও দায়রা জজ যাবিদ হোসেন, স্পেশাল জজ রেজাউল করিম সরকার, আপিল বিভাগের রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ সাইফুর রহমান, হাইকোর্ট বিভাগের রেজিস্ট্রার এসকেএম তোফায়েল হাসান, চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জুলফিকার উল্লাহ, জেলা প্রশাসক শাকিল আহমেদ, পুলিশ সুপার শাহ্ ইফতেখার আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

পরে প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান একটি বকুল ফুলের চারা ও বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম সফেদার চারা রোপণ করেন।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত