শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

মুখ থুবড়ে পড়ছে হিমার্স!

আপডেট : ২৫ মে ২০২৪, ০৯:৫৯ পিএম

চলমান রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধে মার্কিন সামরিক সহায়তার অংশ হিসেবে ইউক্রেনকে পাঠানো মার্কিন হিমার্স ক্ষেপণাস্ত্রগুলো রুশ ‘ইলেকট্রনিক জ্যামিং সিস্টেম’ (ক্ষেপণাস্ত্র হামলা আটকে দেওয়ার প্রযুক্তি) এর জন্য কোনো কাজেই আসছে না। রাশিয়ার জ্যামিং সিস্টেম আকাশে একটি নির্দিষ্ট ক্ষেত্র তৈরি করেছে যেখানে প্রবেশ করার পর ক্ষেপণাস্ত্রগুলোর সঙ্গে স্যাটেলাইটের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এর কারণে ক্ষেপণাস্ত্রগুলো লক্ষ্যবস্তু থেকে সরে গিয়ে ভুল জায়গায় আঘাত হানে।

হিমার্স ক্ষেপণাস্ত্রগুলো যুক্তরাষ্ট্রে তৈরি করা হয়েছে। এগুলো ৫০ মাইল দূরের রুশ লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম। কিন্তু রুশ সামরিক বাহিনীর ইলেক্ট্রনিক যুদ্ধকৌশলের সামনে এগুলোর প্রত্যাশিত ব্যবহার করতে পারছে না ইউক্রেনীয় সেনারা। অথচ শুরুর দিকে এই অস্ত্রই ইউক্রেনকে এগিয়ে দিয়েছিল অনেক।

সম্প্রতি যুদ্ধে ইউক্রেনের ব্যবহৃত বিভিন্ন অস্ত্র নিয়ে একটি পর্যালোচনা মার্কিন সংবাদপত্র দ্য ওয়াশিংটনের হাতে এসেছে। পর্যালোচনা থেকে দেখা যায়, ইউক্রেন বাধ্য হয়ে পশ্চিমাদের সরবরাহ করা বিভিন্ন অস্ত্রের ব্যবহার বন্ধ করে দিয়েছে। কারণ হিসেবে দেখানো হয়েছে, হামলার সঠিক লক্ষ্যবস্তু নির্ধারণ করতে রুশ প্রযুক্তির বাধার মুখোমুখি হচ্ছে ইউক্রেন। এর মধ্যে ‘এক্সক্যালিবুর জিপিএস’ নিয়ন্ত্রিত আর্টিলারি শেল রয়েছে যেগুলো নির্ভুলভাবে লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে ব্যর্থ হচ্ছে।

রাশিয়া যে ‘জ্যামিং সিস্টেম’ ব্যবহার করছে সেগুলো মাটি থেকেই পরিচালনা করা যায়। এগুলো ব্যবহার করে রুশ বাহিনী আকাশে ক্ষেপণাস্ত্র আটকে দেওয়ার জন্য একটি নির্দিষ্ট ক্ষেত্র তৈরি করে যেখানে প্রবেশ করার পর ক্ষেপণাস্ত্রগুলোর সঙ্গে স্যাটেলাইটের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। রুশ জ্যামিং সিস্টেমের কারণে ইউক্রেনের ব্যবহৃত এক্সক্যালিবুর শেলগুলোর কার্যকারিতা ১০ শতাংশে নেমে আসায় সেগুলোর ব্যবহার গত বছরেই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

যুদ্ধের শুরুতে একটি আঘাতেই লক্ষ্যবস্তু ধ্বংস করতে পারার জন্য যে হিমার্স ক্ষেপণাস্ত্রগুলোর অনেক প্রশংসা করা হয়েছিল, সেগুলোই এখন ‘সম্পূর্ণ অকেজো’ হয়ে গেছে বলে ইউক্রেনীয় সামরিক বাহিনীর একটি সূত্র জানিয়েছে।

পেন্টাগন থেকে শুরু করে অস্ত্র নির্মাতারা সমস্যাগুলো সমাধানের চেষ্টা করে যাচ্ছেন যাতে রুশ জ্যামিং সিস্টেম কোনো বাধা হয়ে দাঁড়াতে না পারে। ইউক্রেনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের একজন মুখপাত্র ওয়াশিংটন পোস্টকে বলেছেন, প্রযুক্তিগত সমস্যা থাকলে তারা অংশীদারদের অবিলম্বে বিষয়টি অবহিত করেন যাতে তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পারে। যুক্তরাষ্ট্র এবং অন্য পশ্চিমা মিত্ররা ধারাবাহিকভাবে তাদের সরঞ্জাম উন্নত করার অনুরোধে সাড়া দিয়ে আসছে।

রাশিয়া স্টারলিংক স্যাটেলাইট নেটওয়ার্ক (ইলন মাস্কের মালিকানাধীন একটি প্রতিষ্ঠান) ব্যাহত করে দিয়েছে। প্রযুক্তিটি ইউক্রেনীয় সৈন্যরা ইন্টারনেট সংযোগের জন্য ব্যবহার করত। ইউক্রেনের ডিজিটাল রূপান্তর মন্ত্রী মাইখাইলো ফেডোরভ একটি সাক্ষাৎকারে বলেছেন, স্টারলিংক প্রযুক্তি অতীতে রুশ জ্যামিং-এর প্রভাবমুক্ত থাকলেও রুশ প্রযুক্তি বর্তমানে আরও উন্নত হয়েছে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত