শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

অর্থহীন ম্যাচে মোস্তাফিজের জ্বলে ওঠা, রেকর্ড

আপডেট : ২৫ মে ২০২৪, ১১:০১ পিএম

সিরিজটা আগেই হাতছাড়া হয়ে গেছে বাংলাদেশের। তিন ম্যাচের সিরিজের শেষ ম্যাচটা তাই নিয়মরক্ষার। এক কথায় অর্থহীনও বলা যায়। সেই ম্যাচে জ্বলে উঠলেন মোস্তাফিজুর রহমান। মাইলফলক ছুঁলেন সাকিব আল হাসান। অল্প রানেই বেঁধে ফেলেছেন যুক্তরাষ্ট্রকে।

শেষটা সুন্দর করার প্রত্যয় ছিল। সেটাই যেন হলো বাংলাদেশের জন্য। স্বাগতিক যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে মান বাঁচানোর মিশনে তাই কিছুটা অন্তত স্বস্তি মিলেছে টাইগার ড্রেসিংরুমে। শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে বাংলাদেশের বোলারদের আঁটসাঁটো বোলিংয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সংগ্রহ ১০৪ রান।

মোস্তাফিজুর রহমানের পাওয়ারপ্লের শেষ ওভার থেকেই মূলত বাংলাদেশের ঘুরে দাঁড়ানোর শুরু। ৬ ওভারে এসে শায়ান জাহাঙ্গীরের উইকেট পেয়েছিলেন ফিজ। সেইসঙ্গে ছিল মেইডেন। মূল একাদশের চারজনকে ছাড়া খেলতে নামা যুক্তরাষ্ট্র খাবি খেয়েছিল সেই ওভার থেকেই। রানের গতি এরপর কমেছে স্বাগতিকদের। বাংলাদেশও সুযোগ বুঝে চেপে ধরে তাদের।

একপর্যায়ে যুক্তরাষ্ট্রের দলীয় সংগ্রহ ১০০ পার হওয়া নিয়েই শঙ্কা ছিল। তবে তানজিম সাকিবের ১৭তম ওভারে এসেছে ১৩ রান। সেটাই শেষ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের স্কোর নিয়ে যায় ১০৪ পর্যন্ত।

মোস্তাফিজ আজ করেছেন ক্যারিয়ার সেরা বোলিং। ৪ ওভার বল ঘুরিয়ে ১ মেইডেনসহ খরচ করেছেন মাত্র ৯ রান। নিয়েছেন ৬ উইকেট। তার আগে কোনো বাংলাদেশি টি-টোয়েন্টিতে ৬ উইকেট পাননি। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের হয়ে আগের সেরা বোলিং ছিল ইলিয়াস সানির। ২০১২ সালে বেলফাস্টে টি-টোয়েন্টি অভিষেকেই আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ১৩ রানে ৫ উইকেট নিয়েছিলেন বাঁহাতি স্পিনে। ৪-১-১০-৬, আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ইতিহাসে ষষ্ঠ সেরা বোলিং করলেন মোস্তাফিজ।

সাকিব ছুঁয়েছেন ৭০০ উইকেটের মাইলফলক। নিয়েছেন একটিই উইকেট। তানজিম সাকিব, হাসান মাহমুদ ও রিশাদ হোসাইনও পেয়েছেন একটি করে উইকেট।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত