শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

চার ছক্কার বিশ্বকাপ

আপডেট : ২৬ মে ২০২৪, ১২:০৬ এএম

দু’বছর যেতেই ফের চার-ছক্কার উন্মাদনায় মাততে প্রস্তুত ক্রিকেটবিশ্ব। নবম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দলগুলোর বিশ্লেষণপূর্বক এ আয়োজনে আজ থাকছে পাকিস্তান

সম্ভাবনা

গৌরবময় অনিশ্চয়তার খেলা ক্রিকেটের সবচেয়ে অনিশ্চিত দলটির নাম পাকিস্তান। এরা কখন যে কী করে বসে তা আগে থেকে ঠাহর করা মুশকিল। সবচেয়ে দেরি করে, নানা নাটকের জন্ম দিয়ে আইসিসির বেঁধে দেওয়া সময়ে কয়েক ঘণ্টা বাকি থাকতে এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দল ঘোষণা করে দেশটি। অবসর ভেঙে ফের জাতীয় দলে ফেরা পাকিস্তানের দুই তারকা মোহাম্মদ আমির এবং ইমাদ ওয়াসিম তাদের জন্য সারপ্রাইজ প্যাকেজ। সঙ্গে আনকোরা ৫ মুখ, যারা এবারই প্রথম খেলবেন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। তবে এদের প্রত্যেকেই আন্তর্জাতিক ও ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটে আলো কুড়িয়ে আসা। পাকিস্তান দলের নেতৃত্বের ভার বাবর আজমের কাঁধে। সেই সঙ্গে ব্যাটিং লাইনআপের মূল খুঁটিও তিনি। টি-টোয়েন্টির পরীক্ষিত ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ রিজওয়ান ও ফখর জামানের সঙ্গে সাঈম-আজম-উসমানরা বেশ সমৃদ্ধ। পেস বোলারদের স্বর্গভূমি পাকিস্তান নামের প্রতি সুবিচার করে বহরে নিয়েছে পাঁচ জনকে। নতুন আব্বাস আফ্রিদি ছাড়া বাকি বাঁহাতি আমির-শাহিনশাহ ও ডানহাতি নাসিম-হারিস নিজেদের দিনে হয়ে উঠতে পারেন প্রতিপক্ষের ত্রাস। দলটির শঙ্কা- একমাত্র বিশেষজ্ঞ লেগ স্পিনার আবরার আহমেদ। ইমাদ-শাদাবের ওপরেই তাই স্পিন সামলানোর পালা। বিশ্বকাপের প্রথম দুই আসরে ফাইনাল খেলার পর সবশেষ গত আসরে পাকিস্তানকে রানারআপ করেছিলেন বাবর। দুয়ে দুয়ে চার মেলাতে পারবেন কি এবার!

এক্স ফ্যাক্টর

শাহিনশাহ আফ্রিদি : ২০১৮ সালে পাকিস্তানের জার্সিতে শাহিনশাহর যখন অভিষেক হয় তখন তার বয়স মাত্র ১৯ বছর। টি-টোয়েন্টির পর তার ওয়ানডে অভিষেক হয়েছিল আমিরের বদলি হিসেবে। সময়ের স্রোতে সাড়ে ছ’ফুট উচ্চতার শাহিনশাহ এখন পাকিস্তানি বোলিং আক্রমণের নেতা। ৬৪টি ম্যাচে তার শিকার সংখ্যা ৮৮টি। যেকোনো কঠিন পরিস্থিতিতে বাবর আজম চোখ বন্ধ করে বল তুলে দিতে পারেন শাহিনশাহর হাতে।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত