মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

দেখি কত হাসতে পারো

আপডেট : ০৮ জুন ২০২৪, ১২:৩৩ এএম

শ্রেণিকক্ষে শিক্ষক নাফিসকে ডাকলেন, তাকে ‘সদাচার’ বিষয়ের ওপর উপস্থিত বক্তৃতা করতে বললেন।

সদাচার বলতে কী বোঝায় বেচারা নাফিস তা জানত না।

সে বলল, আমার আম্মু ভালো আচার বানাতে পারলেও কখনো সদাচার বানাননি। আমি অন্য কারও বাড়িতে গিয়েও এই আচার খাইনি। এ বিষয়ে তাই আমি বেশি কিছু বলতে পারব না।

বিজ্ঞানের ক্লাস হচ্ছে।

শিক্ষক রবিউলকে জিজ্ঞেস করলেন, বলো তো, পদার্থ কাকে বলে?

রবিউল বলল, জানি না।

ভীষণ রেগে স্যার বললেন, অপদার্থ কোথাকার! যার ভর আছে এবং স্থান দখল করে তাকে পদার্থ বলে এই সামান্য জিনিসটাও জানো না?

রবিউল অবাক হয়ে বলল, স্যার, আমার ওজন ত্রিশ কেজি আর আমি স্থানও দখল করি, তবু আমাকে অপদার্থ বললেন কেন?

এক শিক্ষার্থী ক্লাসে আসতে দেরি করল। শিক্ষক জিজ্ঞেস করলেন, কী ব্যাপার? আসতে এত দেরি করলে কেন?

শিক্ষার্থী : স্যার, গতকাল রাতে প্রচ- বৃষ্টি হয়েছে। রাস্তাঘাট হয়ে গেছে পিচ্ছিল। এক পা আগাই তো দুই পা পিছিয়ে যাই। তাই দেরি হয়ে গেছে।

শিক্ষার্থীর জবাব শুনে শিক্ষক খুব রেগে গেলেন। বললেন, তাহলে স্কুলে এলে কীভাবে?

শিক্ষার্থী : স্যার, পেছন ফিরে মানে বাড়ির দিকে মুখ করে স্কুলে রওনা দিয়েছিলাম যে!

   
সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত