মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০২৪, ১১ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

মাংসপেশির ব্যথার কারণ ও চিকিৎসা

আপডেট : ০৯ জুন ২০২৪, ০১:২০ এএম

মাংসপেশির ব্যথা (Muscle Pain) বা মায়ালজিয়া (Myalgia) একটি সাধারণ সমস্যা, যা বিভিন্ন কারণে হতে পারে। মাংসপেশির ব্যথার কারণ এবং ব্যথা হলে কী করবেন জেনে নিন।

কারণ

অতিরিক্ত পরিশ্রম অতিরিক্ত শারীরিক কার্যকলাপ বা ভারী পরিশ্রম করলে মাংসপেশির ওপর চাপ পড়ে এবং ব্যথা হতে পারে।

আঘাত শারীরিক আঘাত, যেমন পড়ে যাওয়া বা দুর্ঘটনা, মাংসপেশিতে ব্যথা সৃষ্টি করতে পারে। ভুল দেহভঙ্গি দীর্ঘ সময় ধরে ভুল দেহভঙ্গিতে বসে থাকা বা দাঁড়িয়ে থাকার ফলে মাংসপেশিতে চাপ পড়ে এবং ব্যথা হতে পারে।

স্ট্রেন বা স্প্রেইন মাংসপেশির স্ট্রেন strain) বা স্প্রেইন sprain) হলে মাংসপেশিতে ব্যথা হতে পারে। টেনশন বা স্ট্রেস মানসিক চাপ বা টেনশনের কারণে মাংসপেশিগুলো শক্ত হয়ে যায় এবং ব্যথা হয়। সংক্রমণ কিছু সংক্রমণ, যেমন ইনফ্লুয়েঞ্জা বা অন্যান্য ভাইরাল সংক্রমণ, মাংসপেশিতে ব্যথা সৃষ্টি করতে পারে। অটোইমিউন রোগ রিউমাটয়েড আর্থ্রাইটিস বা লুপাসের মতো অটোইমিউন রোগগুলোতে মাংসপেশিতে ব্যথা হতে পারে।

ওষুধের পাশর্^প্রতিক্রিয়া কিছু ওষুধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হিসেবেও মাংসপেশির ব্যথা হতে পারে।

ইলেক্ট্রোলাইটের ভারসাম্যহীনতা শরীরে ইলেক্ট্রোলাইটের (যেমন- পটাশিয়াম, ক্যালসিয়াম) ভারসাম্যহীনতা মাংসপেশির ব্যথার কারণ হতে পারে।

মাংসপেশির ব্যথার করণীয়

 বিশ্রাম মাংসপেশিকে পর্যাপ্ত বিশ্রাম দিন। অতিরিক্ত পরিশ্রম থেকে বিরত থাকুন। গরম সেঁক ব্যথার স্থানে গরম সেঁক (হট কমপ্রেস) ব্যবহার করুন। এটি রক্ত সঞ্চালন বাড়ায় এবং ব্যথা কমায়।

 বরফ সেঁক যদি ব্যথা আঘাতের কারণে হয়, তবে প্রথমে বরফ সেঁক দিন। এটি প্রদাহ কমাতে সাহায্য করবে।স্ট্রেচিং এবং ম্যাসাজ মৃদু স্ট্রেচিং এবং ম্যাসাজ মাংসপেশিকে শিথিল করতে এবং ব্যথা কমাতে সাহায্য করতে পারে। ব্যায়াম হালকা ব্যায়াম, যেমন- হাঁটা বা যোগব্যায়াম, মাংসপেশির শক্তি এবং নমনীয়তা বাড়ায়। পানি ও তরল খাবার পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি ও তরল খাবার গ্রহণ করুন। এটি শরীরের ইলেক্ট্রোলাইটের ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে।

 পুষ্টিকর খাদ্য স্বাস্থ্যকর এবং পুষ্টিকর খাদ্যগ্রহণ করুন, যা প্রয়োজনীয় ভিটামিন ও খনিজ সরবরাহ করে। ব্যথানাশক ওষুধ যেমন আইবুপ্রফেন, ন্যাপ্রক্সেন সোডিয়াম ইত্যাদি ব্যথা কমাতে সাহায্য করতে পারে, তবে অবশ্যই একজন চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী খেতে হবে।

 ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা যদি ব্যথা দীর্ঘস্থায়ী হয় বা অতি তীব্র হয় সে ক্ষেত্রে ফিজিওথেরাপি চিকিৎসার মাধ্যমে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াহীন ভাবে ব্যথা কমাতে একজন ফিজিওথেরাপি বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিতে হবে।

প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা

নিয়মিত ব্যায়াম করুন।

শারীরিক কার্যকলাপের আগে ও পরে স্ট্রেচিং করুন। সঠিক ভঙ্গিতে বসুন ও দাঁড়ান। মানসিক চাপ কমানোর জন্য নিয়মিত মেডিটেশন বা রিল্যাক্সেশন টেকনিক ব্যবহার করুন।

   
সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত