সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১
দেশ রূপান্তর

‘পরিবার ছাড়া ঈদ করতে খারাপ লাগছে’

আপডেট : ১৭ জুন ২০২৪, ০৫:০০ পিএম

যুক্তরাজ্যের বার্মিংহাম জামে মসজিদে নামাজ পড়তে এসেছিলেন জাহেদ আহমদ। বললেন, ‘পরিবার ছাড়া এটি আমার চতুর্থ ঈদ। খারাপ লাগছে পরিবার ছাড়া ঈদ করতে হচ্ছে। কিন্তু বার্মিংহামে একটি বড় বাঙালি কমিউনিটি রয়েছে। সবার সাথে ঈদ করতে পেরে ভালো লাগছে।’

প্রায়ই একই কথা বলেন তোফাজ্জল হোসেন নামের একজন। তিনি বলেন, ‘পরিবারের সান্নিধ্য ছাড়া ঈদগুলো কষ্টদায়ক। তবু এই শহরের বাঙালি কমিউনিটির সবাই একসাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করার চেষ্টা করছি। অনেকের সাথে দেখা হয়েছে। ভালো লাগছে।’ 

রবিবার (১৬ জুন) ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যে দিয়ে পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপিত হয় যুক্তরাজ্যে। দেশটির রাজধানী লন্ডনে সবচেয়ে বড় ঈদের জামায়াত অনুষ্ঠিত হয় রিজেন্ট পার্ক সেন্ট্রাল মসজিদে। এদিন স্থানীয় সকাল ৭টা থেকে শুরু হয়ে এক ঘণ্টা পর পর ছয়টি ঈদের জামায়াত অনুষ্ঠিত হয়।

নামাজ শেষে মুসল্লিরা কোলাকুলি করে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। এ জামাতে প্রবাসী বাংলাদেশিরা অংশ নেন। পরে বাংলাদেশিসহ বিভিন্ন দেশের মুসলিমরা পশু কোরবানি করেন।

লন্ডন ছাড়াও বাংলাদেশি অধ্যুষিত যুক্তরাজ্যের অন্যান্য শহর লোটন, বার্মিংহাম, ওল্ডহাম, ম্যানচেস্টার, সান্ডারল্যান্ড, ব্রাডফোর্ড, নিউক্যাসল, কার্ডিফ, গ্লাসগো ও এডিনবরার ঈদের জামাতে বিপুলসংখ্যক মুসল্লি অংশগ্রহণ করেছেন। বিভিন্ন জায়গায় ঈদ জামাতে মুসল্লিদের জন্য খাবার ও শিশুদের জন্য বিনোদনের ব্যবস্থা ছিল।

সর্বশেষ সর্বাধিক পঠিত আলোচিত