আজকের পত্রিকা

জিন সেজে ‘আলাদিনের চেরাগ’ বিক্রি

  • প্রতিদিন ডেস্ক   

প্রদীপটা মাটিতে ঘষলেই আবির্ভূত হচ্ছে জিন। প্রদীপের মালিক তাকে যা হুকুম করছে, সে তাই পালন করছে। এমন প্রদীপের কথা পাওয়া যায় আরব্য রজনীর গল্পে। কিন্তু সম্প্রতি ভারতের উত্তরপ্রদেশের মেরঠে এক চিকিৎসক ‘আলাদিনের প্রদীপ’ কিনেছিলেন দুই ব্যক্তির কাছ থেকে। প্রদীপ ঘষে ‘জিন’ হাজিরও করা হয়েছিল! পরে অবশ্য ফাঁস হয়ে যায় গুমর। চিকিৎসক পুলিশে অভিযোগ করলে ওই দুই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানাচ্ছে, গত ২৫ অক্টোবর মেরঠের চিকিৎসক এল এ খান পুলিশে অভিযোগ করেন, আলাদিনের প্রদীপ বিক্রির নাম করে ইকরামুদ্দিন ও আনিস নামে দুই প্রতারক তার থেকে ৩১ লাখ রুপি নিয়ে গেছে। 

এল এ খান বলেন, আনিসের বাড়িতে আমি মাঝেমধ্যেই তার মায়ের চিকিৎসার জন্য যেতাম। প্রায় এক মাস ধরে বেশ কয়েকবার আমি তাদের বাড়িতে গিয়েছি। তারা আমাকে বলত, তাদের বাড়িতে এক গডম্যান আসে। তারা আমাকে বারবার বলতে থাকে, আপনি একবার ওই গডম্যানের সঙ্গে দেখা করুন। পরে ডাক্তার সেই গডম্যানের সঙ্গে দেখা করেন। সে নানারকম আচার-অনুষ্ঠান করত।

পরে গডম্যান ও দুই ভাই ডাক্তারকে বলে, তাদের কাছে এমন একটা চেরাগ আছে যেটি বাড়িতে থাকলে ডাক্তার ধনী হয়ে উঠবেন। তার স্বাস্থ্য ভালো থাকবে। পরিবারের সবার ভালো হবে। কারণ ওটা হলো ‘আলাদিন কা চিরাগ’। ডাক্তার বলেন, একবার আনিসদের বাড়িতে আমার সামনেই ‘জিন’ হাজির করা হয়েছিল। আমি তখন ভেবেছিলাম সত্যি আলাদিন। পরে বুঝেছি, প্রতারকদের একজনই আলাদিন সেজে আমাকে দেখা দিয়েছিল।

তিনি জানান, তারা জানায় প্রদীপটির দাম দেড় কোটি রুপি। সেটি কিন্তু শেষ পর্যন্ত তারা মাত্র ৩১ লাখ রুপিতেই তাকে দিতে রাজি হয় এবং টাকা নিয়ে নেয়। 

পুলিশ জানায়, ওই প্রতারকরা মেরঠের আরও কয়েকটি বাড়িতে যেত। ‘তন্ত্রবিদ্যা’র নাম করে তারা আরও অনেককে ঠকিয়েছে। প্রতারক চক্রে এক নারী যুক্ত ছিল। তাকে গ্রেপ্তার করা যায়নি।

এই পাতার আরো খবর