পাখিটি চিনতে পারছেন তো?|110657|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৭ নভেম্বর, ২০১৮ ১৭:১৩
পাখিটি চিনতে পারছেন তো?
অনলাইন ডেস্ক

পাখিটি চিনতে পারছেন তো?

বিরল এই আলবিনো চড়ুইর দেখা মিলেছে তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায়। ছবি: আনাদলু

ঘরের চালার এক কোণায় বাস করা ছোট্ট পাখিটি যেন পরিবারেরই সদস্য। এক সময় এই ছোট্ট পাখিটির কিচিরমিচির শব্দে গ্রামের প্রতিটি বাড়ি মুখর থাকতো। আজকাল অবশ্য তেমনটা আর নেই। তবে রজনীকান্ত সেনের ‘স্বাধীনতার সুখ’ কবিতায় আবাস নিয়ে বাবুই পাখির সঙ্গে চড়ুইর বাহাস কমবেশি সবাই জানে। বলছিলাম অতিপরিচিত সেই চড়ুই পাখির কথা।

তবে ছবির চড়ুই পাখির সঙ্গে আমাদের চারপাশে দেখা চড়ুইর মিল নেই। বিশেষ করে রঙয়ে। বিশ্বে বিভিন্ন রঙের বা প্রজাতির চড়ুইয়ের অস্তিত্ব পাওয়ার কথা শোনা গেছে। এটা হলো আলবিনো প্রজাতির চড়ুই। শরীরে মেলানিন ঘাটতির কারণে এই চড়ুইয়ের পালকের রঙ সাদা।

বিরল এই আলবিনো চড়ুইর অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া গেছে। তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় এই পাখিটির দেখা মিলেছে। সাধারণত এর গভীর কালো চোখ আর ডানায় বিশেষ দাগের কারণে এটাকে সহজেই অন্য চড়ুই থেকে আলাদা করা যায়।

গত বছর তুরস্কের বন্যপ্রাণী বিশেষজ্ঞ এমিন ইউর্তচোলো প্রথম এই বিরল চড়ুইর ছবি তোলেন। এ বছর অবশ্য আঙ্কারার একটি উদ্যানে অন্যান্য প্রজাতির চড়ুইয়ের সঙ্গে এক জোড়া আলবিনো চড়ুইর দেখা পাওয়া গেছে।

তুরস্কের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম আনাদলু-কে এক সাক্ষাৎকারে এমিন বলেন, তিনি এ পর্যন্ত ৬০টির মতো দেশে বিভিন্ন ধরনের পাখি পর্যবেক্ষণ করেছেন। এক বছর যাবৎ এই উদ্যানে বিরল প্রজাতির এই চড়ুই দেখছেন।

তিনি বলেন, সাদা বলেই নয়, এই চড়ুই পাখির গভীর কালো চোখ আর সাদা ডানার মধ্যে ছোট ছোট দাগের কারণে একে আলবিনো প্রজাতি বলা হচ্ছে। কারণ সব সাদা পাখি কিন্তু আলবিনো প্রজাতির নয়। আবার সব আলবিনো পাখিই সাদা নয়।

‘এরা সব সময় জোড়া বেঁধে থাকতে পছন্দ করে। গত বছরও তারা জুগলবন্দি হয়ে দেখা দিয়েছে’ বলেন এই পাখি বিশেষজ্ঞ।

এমিন বলেন, সাদা চড়ুই দেখতে বেশ মনোমুগ্ধকর। তবে প্রকৃতির সঙ্গে লড়াই করে এরা বেশিদিন টিকে থাকতে পারে না।