কোহলি স্লেজিং না করলে তা হবে বিস্ময়!|110679|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৯ নভেম্বর, ২০১৮ ১৩:৩৯
কোহলি স্লেজিং না করলে তা হবে বিস্ময়!
অনলাইন ডেস্ক

কোহলি স্লেজিং না করলে তা হবে বিস্ময়!

গেল সফরে মিচেল জনসনের সাথে মাঠেই কথার লড়াইটা বাজে দিকে চলে গিয়েছিল।

বিরাট কোহলি মাঠে থাকবেন অথচ স্লেজিং করবেন না, তা হয় না! অন্তত অস্ট্রেলিয়ান ফাস্ট বোলার প্যাট কামিন্সের তাই বিশ্বাস। তিনি মানেন, কোহলির ক্রিকেট প্যাশনের জুড়ি নেই। কিন্তু সেই খেলোয়াড় এবারের অস্ট্রেলিয়া সফরে স্লেজিং না করলে কামিন্সের বিস্ময়ের শেষ থাকবে না।

ভারত দল এখন অস্ট্রেলিয়া সফরে। দীর্ঘ সফর। কোহলির দলের সামনে ইতিহাস নতুন করে লেখার হাতছানি। দারুণ সুযোগ অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে গৌরবের ভিন্ন অধ্যায় রচনার। ২১ নভেম্বর সংক্ষিপ্ততম সংস্করণ দিয়ে মাঠের লড়াই শুরু তাদের। এবারের ডাউন আন্ডারের শুরুটির পর থাকবে আরো দুটি টি-টুয়েন্টি। এরপর চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজ। আর একেবারে শেষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ দিয়ে সমাপ্তি।

মাত্রই দেশের মাটিতে দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে ওয়ানডে সিরিজ এবং একমাত্র টি-টুয়েন্টিতে হেরেছে অস্ট্রেলিয়া। নতুন পরীক্ষার জন্য তারা নিজেদের তৈরি করছে। আর এই সময়ে পেসার কামিন্স কোহলির স্লেজিংপ্রবণ ইতিহাসের দিকে তাকিয়ে কথার লড়াইয়ের শুরুটা করে দিলেন বুঝি!

“আমি মনে হয় সেদিন মিডিয়ায় শুনলাম- সে বলছে যে (স্লেজিং) করবে না। কিন্তু আমি খুবই অবাক হবো যদি সে তা না করে” ফায়ারফক্স মিডিয়াকে বলেছেন কামিন্স।

এই বিশ্বে কোহলির মতো এতো অবলীলায় এখন কেউ রান করে না। রান মেশিনের ব্যাট যেমন চলে, তার চেয়ে কোনো অংশে মুখ কম চলে না। আগে আরও বেশি চলতো। নেতৃত্বে আসার পর কমেছে। তবে সেই কমাটাও বলার মতো উল্লেখযোগ্য বটে। গেল সফরে মিচেল জনসনের সাথে মাঠেই কথার লড়াইটা বাজে দিকে চলে গিয়েছিল।

তবে এবার সফর শুরুর আগেই ভারত অধিনায়ক বলেছেন, ক্যারিয়ারের শুরুর দিকের ওই কথা চালাচালি তার জন্য ছিল অপরিণত ব্যাপার- বোঝেন এখন। আর তার জন্য যথেষ্ট ব্যাটটাই। খেলার বাইরে অস্ট্রেলিয়ার মাঠে অন্য কিছুতে জড়ানোর কোনো ইচ্ছে তার নেই।

এসব শুনে বিশ্বাস না করলেও কামিন্স পিঠটাই চাপড়াচ্ছেন কোহলির, “ও খুব লড়াকু, সাফল্য চায়। আমরাও মাঠ কামড়ে থাকবো। সবকিছুতেই লড়াকু হবো। অবশ্যই তাকে অন্যদের মতো করে বিবেচনা করা হবে না।”

কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকার বল ট্যাম্পারিং কেলেঙ্কারির ধাক্কা যে এখনো অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটের শরীরে ক্ষত হয়ে আছে। স্টিভেন স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নারদের ছাড়া এখন যে কারো সাথেই তারা পেরে উঠছে না সেভাবে!