খাসোগি হত্যার অডিও শুনতে চান না ট্রাম্প|110683|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৯ নভেম্বর, ২০১৮ ১৪:৩৫
খাসোগি হত্যার অডিও শুনতে চান না ট্রাম্প
অনলাইন ডেস্ক

খাসোগি হত্যার অডিও শুনতে চান না ট্রাম্প

সাংবাদিক খাসোগি হত্যাকাণ্ডের অডিও টেপকে ‘যন্ত্রণাদায়ক’, ‘নিষ্ঠুর’ ও ‘ভয়ঙ্কর’ বলে উল্লেখ করেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। ছবি: সংগৃহীত

সাংবাদিক জামাল খাসোগি হত্যাকাণ্ডের ‘যন্ত্রণাদায়ক’ অডিও শুনতে চান না যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেছেন, এই অডিও রেকর্ডিং শোনার কোনো মানে হয় না।

ট্রাম্প নিশ্চিত করেছেন, যুক্তরাষ্ট্র ওই ঘটনার অডিও রেকর্ডিং পেয়েছে। তুরস্কই তাদেরকে এটি দিয়েছে।

রোববার ফক্স চ্যানেলে এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, “আমি এই টেপটি শুনতে চাই না; এবং শুনতে না চাওয়ার পেছনে কোনো কারণও নেই।”

অবশ্য আলজাজিরা জানিয়েছে, একপর্যায়ে ট্রাম্প এই টেপকে ‘যন্ত্রণাদায়ক’, ‘নিষ্ঠুর’ ও ‘ভয়ঙ্কর’ বলে উল্লেখ করেন। যার কারণে তিনি এটি শুনতে চান না বলে জানান।

শুক্রবার ধারণ করা এই সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প আরও বলেন, সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান তাকে স্পষ্টভাবে জানিয়েছেন- খাসোগি হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় তার কিছু করার ছিল না। এমনকি কেউ এই হত্যাকাণ্ডের ব্যাপারে জানতো কিনা সেটি নিয়েও বিস্ময় প্রকাশ করেন যুবরাজ।

এদিকে শনিবার ট্রাম্প সাংবাদিকদের জানান, দুদিনের মধ্যে তার প্রশাসন খাসোগি হত্যার ঘটনার পূর্ণ প্রতিবেদন প্রকাশ করবে। কারা এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তাদের তথ্যও প্রতিবেদনে প্রকাশ করা হবে।

সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের কড়া সমালোচক হিসেবে পরিচিত ছিলেন জামাল খাসোগি। গত ২ অক্টোবর তুরস্কের ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটে প্রবেশের পর নিখোঁজ হন ওয়াশিংটন পোস্টের এই কলামিস্ট।

শুরুতে অভিযোগ অস্বীকার করে সৌদি। তবে সংবাদমাধ্যমে তুর্কি গোয়েন্দাদের একের পর এক ‘তথ্য ফাঁসে’র মুখে ১৯ অক্টোবর খাসোগি হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছে বলে স্বীকার করে সৌদি কর্তৃপক্ষ। যদিও এর সাথে সৌদি যুবরাজের কোনো সম্পৃক্ততা নেই বলে তারা দাবি করে।