মৃত নারীর গর্ভ প্রতিস্থাপন করে শিশুর জন্ম|110962|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ৫ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৩:২৭
মৃত নারীর গর্ভ প্রতিস্থাপন করে শিশুর জন্ম
অনলাইন ডেস্ক

মৃত নারীর গর্ভ প্রতিস্থাপন করে শিশুর জন্ম

প্রথমবারের মতো মৃত নারীর গর্ভ প্রতিস্থাপন করে শিশুর জন্ম। ছবি: সায়েন্স নিউজ

মৃত নারীর গর্ভ প্রতিস্থাপন করে জন্ম হলো এক শিশুর। ব্রাজিলের সাও পাওলো ইউনিভার্সিটির স্কুল অব মেডিসিনের বিশেষজ্ঞরা অভূতপূর্ব এ ঘটনার জন্ম দেন। জন্ম নেয়া মেয়ে শিশুটি সুস্থ আছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

বৃহস্পতিবার এক প্রতিবেদনে বিবিসি জানায়, ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে জন্ম নেয় এ শিশু। ২০১৬ সালে ১০ ঘণ্টার প্রচেষ্টায় এক মৃত নারীর গর্ভ প্রতিস্থাপন করা হয় ৩২ বছর বয়সী এক নারীর দেহে। এরপর তার গর্ভধারণের প্রক্রিয়া শুরু করেন চিকিৎসকরা। গর্ভ ছাড়াই জন্ম নিয়েছিলেন ওই নারী।

জানা গেছে, একইভাবে গর্ভ প্রতিস্থাপনের ৩৯টি ঘটনা ঘটেছে। যদিও সেক্ষেত্রে গর্ভ দানকারীরা ছিলেন জীবিত কোনো নারী। এমনকি মেয়ের দেহে মায়ের গর্ভ প্রতিস্থাপন করেও জন্ম নিয়েছে শিশু। গর্ভ প্রতিস্থাপনের পর সন্তানধারণের প্রক্রিয়া শেষে এরমধ্যে জন্ম নিয়েছে ১১টি শিশু।

তবে মৃতদেহ থেকে গর্ভ প্রতিস্থাপনের ঘটনা এটিই প্রথম। এর আগে ১০বার চেষ্টা করেও চিকিৎসকরা ব্যর্থ হয়েছিলেন। হয় প্রতিস্থাপন করা সম্ভব হয়নি নয়তো অপরিপক্ষ সন্তান জন্মদানের ঘটনা ঘটেছে।

সাও পাওলোর হাসপাতাল দাস ক্লিনিকাসের চিকিৎসক ডা. দানি ইজেনবার্গ বলেন, উপযুক্ত  গর্ভদাতা সেইসঙ্গে প্রয়োজনীয় মেডিকেল সুবিধা পেলে সন্তান জন্মদানে অক্ষম অনেক নারী মা হওয়ার আলোর মুখ দেখবেন।

লন্ডন ইম্পেরিয়াল কলেজ থেকে পাস করা আরেক বিশেষজ্ঞ ডা. এসারডিজান সাজো এ ঘটনাকে ‘খুবই উত্তেজনাপূর্ণ’ হিসেবে অভিহিত করেন।

তিনি বলেন,  “এ ঘটনার মধ্যদিয়ে বিপুল সংখ্যক গর্ভ দানকারী সৃষ্টির সম্ভাবনা বাড়লো। এতে জীবিত দাতাদের ঝুঁকি এড়ানো যাবে, সেইসঙ্গে কম খরচে গর্ভ প্রতিস্থাপন সম্ভব হবে।”