৪ টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীর দপ্তর ভাগ |111213|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১১ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৮:১৫
৪ টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীর দপ্তর ভাগ
নিজস্ব প্রতিবেদক

৪ টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীর দপ্তর ভাগ

মতিউর রহমান, নুরুল ইসলাম, ইয়াফেস ওসমান ও মোস্তাফা জব্বার

চার টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীর ছেড়ে দেওয়া দপ্তরগুলো বণ্টন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের জারি করা এক আদেশে বলা হয়, রুলস অব বিজনেসের ক্ষমতাবলে প্রধানমন্ত্রী বর্তমান দায়িত্বের অতিরিক্ত হিসেবে মন্ত্রীদের এসব মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দিয়েছেন।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় এবং ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় নিজের হাতে রেখে শেখ হাসিনা প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দিয়েছেন স্থানীয় সরকারমন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেনের হাতে; ধর্ম মন্ত্রণালয়ের ভার পেয়েছেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হোসেন।

চলতি বছর জানুয়ারিতে মন্ত্রিসভায় সর্বশেষ রদবদলের পর এতদিন ৩০ জন মন্ত্রী, ১৭ জন প্রতিমন্ত্রী এবং দুইজন উপমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

তাদের মধ্যে ধর্মমন্ত্রী মতিউর রহমান, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী ইয়াফেস ওসমান এবং ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার নির্বাচিত সংসদ সদস্য না হয়েও টেকনোক্র্যাট হিসেবে মন্ত্রিসভায় দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

একাদশ সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আগে গত ৬ নভেম্বর মন্ত্রিসভা থেকে টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীদের পদত্যাগ করার নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী। ওই দিন সন্ধ্যায় চার মন্ত্রী মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে পদত্যাগপত্র জমা দেন। একাদশ সংসদ নির্বাচনের তোড়জোড়ের মধ্যে তখন ছোট আকারের সরকার গঠনের একটি আলোচনা উঠলেও পরে তা হয়নি।

এরমধ্যে পদত্যাগপত্র গ্রহণ না করা পর্যন্ত এ চারজন মন্ত্রীকে দায়িত্ব চালিয়ে যেতে গত ৭ নভেম্বর নির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর থেকে তারা দাপ্তরিক কার্যক্রম চালিয়ে আসছিলেন। গত ৯ ডিসেম্বর রাষ্ট্রপতি চারজনের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করার পর তাদের অব্যাহতি দেওয়া হয়।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকারের মন্ত্রিসভার শেষ বৈঠকটি গত ৩ ডিসেম্বর হয়ে গেছে। সরকারের মন্ত্রীরা এখন কেবল রুটিন দায়িত্ব পালন করছেন।