রাজশাহীতে ভোটের হাওয়া, প্রচারণায় বাদশা-মিনু |111226|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১১ ডিসেম্বর, ২০১৮ ২০:৪৮
রাজশাহীতে ভোটের হাওয়া, প্রচারণায় বাদশা-মিনু
রাজশাহী প্রতিনিধি

রাজশাহীতে ভোটের হাওয়া, প্রচারণায় বাদশা-মিনু

নির্বাচনী প্রচারের দ্বিতীয় দিনে জমজমাট রাজশাহীর ভোটের মাঠ। মঙ্গলবার দ্বিতীয় দিনে ভোটের মাঠে নামলেন নৌকার প্রার্থী ফজলে হোসেন বাদশা ও ধানের শীষের প্রার্থী মিজানুর রহমান মিনু। প্রধান দুই প্রতিদ্বন্দ্বি ভোটের মাঠে নেমে পড়ায় রাজশাহী সদর আসনে জমে উঠেছে ভোটের প্রচার।

আসন্ন সংসদ নির্বাচনে রাজশাহী সদর আসনে ১৪ দল মনোনীত প্রার্থী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা নগরীর ১ নম্বর ওয়ার্ডে গণসংযোগের মাধ্যমে প্রচার শুরু করেন। সকালে তিনি কাশিয়াডাঙ্গা মোড় থেকে গণসংযোগ শুরু করেন। এ সময় তিনি কাশিয়াডাঙ্গা মোড়ের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। সবার হাতে হাতে তুলে দেন নৌকা প্রতিকের পোস্টার।

এসময় বাদশা বলেন, ‘উন্নয়নের প্রতিক নৌকা। বাংলাদেশ সৃষ্টি থেকে শুরু করে সব অর্জনের পেছনে এই নৌকার ভূমিকা সবার চেয়ে বেশি। তাই রাজশাহী তথা দেশকে এগিয়ে নিতে হলে নৌকার সাথেই থাকতে হবে। যারা দেশের জন্য কিছু না করে ক্ষমতায় যাওয়ার পর শুধু নিজেকে নিয়েই ব্যস্ত থাকেন এমন কাউকে ভোট দেয়া যাবে না। নির্বাচনে ভোট দিতে হবে নৌকাতেই।

 এ সময় বাদশার সঙ্গে ছিলেন, মহানগর ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি লিয়াকত আলী লিকু, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শফিকুর রহমান বাদশা, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুর রউফ প্রমুখ।
এদিকে, রাজশাহী-২ সদর আসনের ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা সাবেক মেয়র মিজানুর রহমান মিনু গতকাল থেকে ভোটের মাঠে প্রচারে নেমেছেন। সকালে প্রচারণায় নামার পুর্বে হযরত শাহ্ মখ্দুম রুপোশ (রাঃ) মাজার জিয়ারত করেন মিজানুর রহমান মিনু। এরপর তিনি নগরীর ১নং ওয়ার্ডের কাাশিয়াডাঙ্গা থেকে নির্বাচনের প্রচার শুরু করেন। এসময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন মহানগর বিএনপির সভাপতি ও সাবেক মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, রাজপাড়া থানা বিএনপির সভাপতি শওকত আলী, মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আসলাম সরকার বিএনপি নেতা ওয়ালিউল হক রানা প্রমূখ।

গণসংযোগকালে মিজানুর রহমান মিনু বলেন, বেকারত্ব সমস্যা সমাধানে রাজশাহীতে ইন্ডাজষ্ট্রিয়াল জোন গড়ে তোলা হবে। যেখানে বিদেশীরা বিনিযোগ করতে আসবে। তার জন্য ভাল পরিবেশ তৈরী করা হবে। তিনি বলেন, রাজশাহীর যত উন্নয়ন বিএনপির আমলে হয়েছে। মেয়র ও এমপি থাকাকালীন সময়ে বিশে^ রাজশাহী একটি শান্তির নগরী হিসেবে পরিণত হয়। এছাড়াও আমি মহানগরীকে গ্রিন সিটি, ক্লিন সিটি, হেলদি সিটি ও এডুকেশন সিটি হিসেবে গড়ে তুলি। এমন কোন স্থাপনা নাই যে আমি করিনি।

মিনু আরো বলেন, এই নির্বাচন বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার নির্বাচন। এই নির্বাচন দেশের ১৬ কোটি মানুষকে আওয়ামী লীগ সরকারের কবল থেকে মুক্ত করার নির্বাচন।  দেশের মানুষের গণগন্ত্র এবং স্বাধীনতা ফিরিয়ে আনতে বিএনপি এ নির্বাচনে অংশ গ্রহন করেছে। এই নগরীর থেমে যাওয়া উন্নয়নের ধারা পুণরায় সচল করার জন্য ধানের শীষে ভোট দিতে হবে।