ভারতে শিশুকে ‘ডিজিটালি রেপ’র দায়ে ২০ বছর কারাদণ্ড|111278|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১২ ডিসেম্বর, ২০১৮ ২০:৩৬
ভারতে শিশুকে ‘ডিজিটালি রেপ’র দায়ে ২০ বছর কারাদণ্ড
অনলাইন ডেস্ক

ভারতে শিশুকে ‘ডিজিটালি রেপ’র দায়ে ২০ বছর কারাদণ্ড

ছবি: দেশ রূপান্তর

ভারতের গুরুগ্রামে চার বছরের শিশুকে ‘ডিজিটালি রেপ’ এর দায়ে শম্ভু নামের এক স্কুলবাস সহকারীকে ২০ বছরের কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গ আদালত। সোমবার অতিরিক্ত দায়রা জজ ‘যৌন অপরাধ থেকে শিশুদের সুরক্ষা বিষয়ক আইন (POCSO Act-2012)’ এর আওতায় রায় দেন।

মামলার বিবরণীতে বলা হয়, ২০১৬ সালের আগস্ট মাসে চতুর্থশ্রেণির শিক্ষার্থী শিশুটি সহপাঠীদের সঙ্গে স্কুল থেকে বাড়ি ফিরছিল। এ সময় বাসের সহকারী (হেলপার) শম্ভু (২৩) শিশুটির পাশে বসে তাকে ‘ডিজিটালি রেপ’ করে।

ঘরে ফিরে শিশুটি তার যৌনাঙ্গে ব্যথা অনুভব করলে বাবা-মা তাকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। ডাক্তার শিশুর বাবা-মাকে জানান, সে যৌন হেনস্থার শিকার হয়েছে। বাড়িতে নিয়ে মা শিশুটির সঙ্গে আলোচনা করেন। মা-বাবাকে বাসের ঘটনা খুলে বলে সে। ঘটনা শুনে বাবা-মা স্থানীয় পুলিশ স্টেশনে অভিযোগ করতে যান। পুলিশ শিশুর বাবা-মাকে প্রাথমিক তদন্তের (FRI) আবেদন জানাতে বলেন। প্রথমে বাবা-মা রাজি না হলেও পরে এফআরআই করেন। তারই ভিত্তিতে শম্ভুকে ২০১৬ সালের আগস্ট মাসে গ্রেফতার করা হয়।

মামলার বিবরণীতে আরও বলা হয়, এই ঘটনার কয়েকদিন আগেই ঐ স্কুলের অস্থায়ী কর্মী হিসেবে নিয়োগ পায় শম্ভু।

পশ্চিমবঙ্গ আদালতের বিচারক জানান, কারও মতের বিরুদ্ধে যৌনাঙ্গে আঙ্গুল দেওয়াকে ‘ডিজিটাল রেপ’ বলে।