জাতীয় নির্বাচনে প্রথম ভোট দেবেন বিলুপ্ত ১১১টি ছিটমহলের ভোটার|111598|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০
জাতীয় নির্বাচনে প্রথম ভোট দেবেন বিলুপ্ত ১১১টি ছিটমহলের ভোটার
আনোয়ার হোসেন স্বপন, লালমনিরহাট

জাতীয় নির্বাচনে প্রথম ভোট দেবেন বিলুপ্ত ১১১টি ছিটমহলের ভোটার

লালমনিরহাট, কুড়িগ্রাম, পঞ্চগড়, নীলফামারীসহ বিভিন্ন জেলার ১১১টি বিলুপ্ত ছিটমহলের মানুষ জাতীয় নির্বাচনে প্রথমবারের মতো ভোট উৎসবে অংশ নেবে। ৬৮ বছর পর বাংলাদেশি নাগরিক হিসেবে প্রথমবারের মতো একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট দেবেন ছিটমহলের ভোটাররা।

লালমনিরহাটের ৫৯টি বিলুপ্ত ছিটমহলের মানুষ প্রথমবারের মতো একাদশ জাতীয় নির্বাচনের ভোট উৎসবে যোগ দিতে পেরে খুশি। জানা গেছে, বিলুপ্ত ছিটমহলের অনেকে পূর্বে ঠিকানা গোপন রেখে অবৈধভাবে ভোট দিয়েছিল। কিন্তু ২০১৫ সালের ১ আগস্ট দেশের ১১১টি ছিটমহল বাংলাদেশের অংশ হিসেবে আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি পাওয়ার পর ছিটমহলবাসী এখন বাংলাদেশের জনগণ। তাই ভোটদানে যোগ্য এসব নাগরিকদের জন্য একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনটাই তাদের জন্য প্রথম নির্বাচন। এই নির্বাচনেই তারা বাংলাদেশের নাগরিক হিসেবে প্রথম ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। সরকারি-বেসরকারি সহায়তায় উন্নয়নের মূল শ্রোতধারায় সম্পৃক্ত হয়েছে বিলুপ্ত ছিটমহলের মানুষ। তাদের সমস্যার আলোকে উন্নয়নের জন্য যে প্রার্থী কাজ করবেন, তাদেরকেই তারা ভোট দেবেন বলে গতকাল শনিবার দেশ রূপান্তকে জানান ।

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার ১৩৫ নম্বর উত্তর গোবধা বিলুপ্ত ছিটমহলের বাসিন্দা মনছের আলী (৭৮) জানান, ‘বাহে, হামার বয়স হয়ছে, কোন বেলা যে মরি যায়, মরার আগত (আগে) স্বাধীনভাবে ভোট দিবার পাম, এটা ভাবলে মনটা জুড়ি যায়।’ একই বয়সী ছকবর আলী ও আলীজন বেওয়া ভোট দেওয়ার সুযোগ পেয়ে আবেগআপ্লুত হয়ে পড়েন। যে প্রার্থী ও দলের মাধ্যমে দেশ ও দশের মঙ্গল হবে, তারা তাকেই ভোট দেবেন বলে জানান।