logo
আপডেট : ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০
খালেদার প্রার্থিতা একক বেঞ্চের প্রতি অনাস্থার লিখিত আবেদন
নিজস্ব প্রতিবেদক

খালেদার প্রার্থিতা একক বেঞ্চের প্রতি অনাস্থার লিখিত আবেদন

তিনটি নির্বাচনী আসনে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মনোনয়নপত্র বাতিলের বিরুদ্ধে রিট আবেদনের শুনানিতে সংশ্লিষ্ট বিচারকের প্রতি লিখিত অনাস্থা দিয়েছেন তার আইনজীবীরা। তবে ওই আবেদন এফিডেভিট আকারে জমা না দেওয়ায় আজ মঙ্গলবার পর্যন্ত শুনানি মুলতবি করা হয়েছে।

গতকাল সোমবার বিচারপতি জে বি এম হাসানের একক বেঞ্চে এ বিষয়ে শুনানি হওয়ার কথা ছিল। এর আগে গত বৃহস্পতিবার এই আদালতের প্রতি মৌখিভাবে অনাস্থার কথা জানান খালেদা জিয়ার আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী।

খালেদা জিয়ার আইনজীবী প্যানেলের সদস্য এ কে এম এহসানুর রহমান গতকাল সাংবাদিকদের বলেন, সকালে আইনজীবী বদরুদ্দোজা বাদল অনাস্থার বিষয়টি লিখিত আকারে আদালতে জমা দেন। পরে দুপুর ২টায় এ বিষয়ে শুনানি হওয়ার কথা ছিল। ওই সময় আদালত জানায় যে, এটি এফিডেভিট আকারে দাখিল করা হয়নি এবং এ বিষয়ে আদেশ দিয়ে মঙ্গলবার শুনানির জন্য রাখে।

বিএনপি চেয়ারপারসনের মনোনয়নের বৈধতা প্রশ্নে হাইকোর্টের একটি দ্বৈত বেঞ্চে গত ১১ ডিসেম্বর বিভক্ত আদেশ হওয়ার পর দিন বিচারপতি জে বি এম হাসানের একক বেঞ্চে এ বিষয়ে শুনানির জন্য নির্ধারণ করে দিয়েছিলেন প্রধান বিচারপতি। বগুড়া-৬ ও ৭ এবং ফেনী-১ আসন থেকে আসন্ন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে দুর্নীতির দুটি মামলায় দণ্ডিত হয়ে কারাগারে থাকা খালেদা জিয়ার পক্ষে মনোননপত্র জমা দেওয়া হয়। যাচাইবাছাই শেষে সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তা মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেন। পরে রিটার্নিং কর্মকর্তার ওই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ইসিতে আপিল করা হলে গত ৮ ডিসেম্বর শুনানি শেষে সংখ্যাগরিষ্ঠ মতামতের ভিত্তিতে খালেদা জিয়ার আপিল খারিজ করে দেয় ইসি। পরে ইসির ওই সিদ্ধান্ত স্থগিত চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করা হয়।