মুমূর্ষু শিশুকে দেখতে মাকে ঢুকতে দিচ্ছে না যুক্তরাষ্ট্র|111827|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৮:০৪
মুমূর্ষু শিশুকে দেখতে মাকে ঢুকতে দিচ্ছে না যুক্তরাষ্ট্র
অনলাইন ডেস্ক

মুমূর্ষু শিশুকে দেখতে মাকে ঢুকতে দিচ্ছে না যুক্তরাষ্ট্র

ক্যালিফোর্নিয়ায় মুমূর্ষু শিশু সন্তানকে শেষবারের মতো দেখতে চান এক ইয়েমেনি নারী। কিন্তু ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার কারণে যুক্তরাষ্ট্র তাকে সে দেশে ঢুকতে দিচ্ছে না।

দায়িত্ব নেওয়ার পর গত বছরের ২৪ সেপ্টেম্বর কয়েকটি দেশের নাগরিকদের ওপর তৃতীয় দফা ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

মূলত মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশগুলোর নাগরিকদের ওপর এ নিষেধাজ্ঞা জারি হয়। তবে চাদ, ইরান, উত্তর লিবিয়া, সোমালিয়া, সিরিয়া, ইয়েমেন ছাড়াও কোরিয়া, ভেনেজুয়েলার নাগরিকরাও এ তালিকায় আছেন।

বিবিসি জানায়, ট্রাম্পের এমন নীতিতে আটকে পড়েছেন ইয়েমেনের নারী সাইমা সুইলেহ। তার দুই বছরের শিশু আব্দুল্লাহ হাসান জন্ম থেকেই মস্তিষ্কজনিত রোগে আক্রান্ত। চিকিসকরা জানান, তার বাঁচার সম্ভাবনা নাই।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, সাইমার স্বামী আলী হাসান এবং সন্তান আব্দুল্লাহ দুইজনই ইয়েমেনি বংশোদ্ভূত যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক। ১৯৮০ সালে হাসানের পরিবার ইয়েমেন থেকে এ দেশে আসেন। কিন্তু ইয়েমেনের আত্মীয় স্বজনের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ ছিল তাদের।

রবিবার আলী হাসান (২২) বলেন, “ইয়েমেনের নাগরিক হওয়ায় তার স্ত্রী সাইমাকে যুক্তরাষ্ট্রে ঢুকতে দিচ্ছে না ট্রাম্প প্রশাসন। তাকে প্রবেশের অনুমতি চেয়ে আবেদন করলে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় তা বাতিল করে দেয়।”

তিনি বলেন, “লাইফ সাপোর্ট খুলে নেয়ার আগে শেষবারের মতো আবদুল্লাহর দেখতে চায় সে। তার ইচ্ছা মৃত্যুর সময় ছেলের হাত ধরে রাখবে।”

সাইমা সুইলেহ বর্তমানে মিশরে অবস্থান করছেন। ইয়েমেন যুদ্ধ থেকে বাঁচতে গত বছর তারা কায়রোতে পালিয়ে আসেন। তখন আবদুল্লাহর বয়স ছিল আট মাস। এরপর তার শারীরিক অবস্থা অবনতি হলে গত তিন মাস আগে সন্তানকে নিয়ে বাবা আলী হাসান যুক্তরাষ্ট্রে চলে আসেন।

আলী আরও জানান, “তারা আবদুল্লাহকে মিশরে নিয়ে যেতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তার শারীরিক অবস্থার কারণে চিকিটসকরা অনুমতি দেননি।”