আমার কিছু কথা আছে|112132|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২০ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৯:১৭
আমার কিছু কথা আছে
অমিত হাবিব

আমার কিছু কথা আছে

নতুন দৈনিক দেশ রূপান্তরের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা। এমন এক সময়ে আমরা উপস্থিত, যখন পুরো দেশ সাগ্রহে অপেক্ষা করছে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য। ভোটারদের কাছে পৌঁছাতে প্রার্থী ও রাজনৈতিক দলগুলোর অদম্য চেষ্টা দৃশ্যমান। চলছে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করার সব আয়োজনও।

স্থিতাবস্থা বা পরিবর্তন যাই হোক, সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমেই হোক ভোটারদের প্রত্যাশাই তা। রাজনৈতিক ব্যবস্থার প্রতি মানুষের অবিচল বিশ্বাস যুগ যুগ ধরে তা-ই প্রমাণ করে। ক্রমেই সহিংসতা বেড়ে যাওয়ার যে আভাস তাতে নির্বাচনকে ঘিরে আশার বিপরীতে দানা বাঁধছে সংশয় ও উদ্বেগও। মানুষের মনে অনেক প্রশ্ন। সংবাদপত্রের পাতায়, টিভির পর্দায়, অনলাইন মাধ্যমে প্রশ্নগুলোর উত্তর তারা খুঁজছে প্রতিনিয়তই; কিন্তু উত্তর মিলছে কি ঠিকঠাক?

সাংবাদিকতার এখন উর্বর সময়। দায়িত্বশীলতার সঙ্গে সঠিক প্রাসঙ্গিকতা যোগ করে তথ্যগুলো পাঠকের সামনে হাজির করার পাশাপাশি জনস্বার্থে সাংবাদিকতা করার সময় এখন। হারিয়ে যাওয়া ধ্রুপদী সে ভাবনা থেকে আমরা শুরু করলাম। আমরা নিজেদের ‘দায়িত্বশীলদের দৈনিক’ পরিচয় দিচ্ছি। যেসব সংবাদকর্মী পত্রিকাটি তৈরি করবেন, তাদের পাশাপাশি দায়িত্বশীল যেসব পাঠক কাগজটি পড়বেন তাদের সেতুবন্ধই আমাদের অভীষ্ট।

প্রস্তুতিতে ন্যূনতম সময় পেলেও পাঠকের সামনে পত্রিকা হাজির হওয়ার তাড়না ছিল আমাদের চালিকাশক্তি। বিষয়ে বৈচিত্র্য আনার পাশাপাশি নির্ভুল পত্রিকা প্রকাশের সব চেষ্টাই আমাদের আছে। তবু কিছু ভুলত্রুটি থাকতে পারে। পাঠক ভুলগুলো দেখিয়ে দেবেন। ফোনে, ইমেইলে, চিঠিতে আমাদের জানাবেন। আমাদের সংশোধিত হওয়ার সুযোগ দেবেন এমনটাই কাম্য। পারস্পরিক মতবিনিময়ের মাধ্যমে পাঠকপ্রিয় পত্রিকা হিসেবে গড়ে উঠবে দেশ রূপান্তর।

ব্যবস্থাপনায় ও বার্তা কক্ষে ত্রিশ বছর নানা ভূমিকায় কাজ করার অভিজ্ঞতা থেকে আমি জানি সংবাদপত্র নির্মাণের কাজটা প্রতিদিনের। প্রতিদিন ইট গুঁজে গুঁজে অট্টালিকা গড়ার মতো। প্রতিটি শব্দকে প্রয়োজনীয় ও অর্থময় করে তোলার, প্রতিটি স্পেসকে কাজে লাগানোর প্রক্রিয়া একটু একটু করে এগিয়ে নিতে হয়। আমি কথা দিচ্ছি, শুরুর দিন থেকেই আমাদের চেষ্টা চলমান থাকবে। পাঠকরা আমাদের সঙ্গে থেকে আমাদের গড়ে ওঠার প্রক্রিয়ায় শক্তি ও সাহস জোগাবেন।

সংবাদপত্রে দীর্ঘকাল নানা দায়িত্ব পালন করলেও সম্পাদক হিসেবে আমি প্রথমবারের মতো হাজির হচ্ছি আপনাদের কাছে। আমার মতো আপনাদেরও এটা বেশ জানাই আস্থা, বিশ্বাসযোগ্যতা ও দায়িত্বশীলতাই সংবাদপত্রের ভিত, শক্তির জায়গা। পাঠকের সঙ্গে অটুট সম্পর্কের মূলেও এসব। আমরা এগুলোকেই লক্ষ্য নির্ধারণ করেছি। সঙ্গে থাকছে পাঠক-চাহিদা মেটানোর নানা আয়োজনও। অভিজ্ঞদের পাশাপাশি তরুণ, সৃজনশীল ও উদ্যমী একদল সাংবাদিক যোগ দিয়েছেন আমার সঙ্গে। অক্লান্ত পরিশ্রম করে তারা আনকোরা আয়োজনে প্রতিটি পাতা সাজিয়ে তুলেছেন।

সেগুলো আপনাদের পছন্দ হবে বলে আশা করি। আমার সহকর্মীদের প্রতি আস্থা রেখে সারা দেশের পাঠকরা এজেন্ট ও হকারদের মাধ্যমে অভিভূত হওয়ার মতো সাড়া দিয়েছেন। সামনে এগিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে এটি আমাদের বিরাট প্রেরণা হিসেবে কাজ করবে।

পত্রিকার সঙ্গে নিউজ ওয়েবসাইট ও ইপেপারও আজ চালু হলো। আমরা চাই, দেশের পাঠকদের পাশাপাশি বিদেশের বাংলাভাষীদের সঙ্গেও দেশ রূপান্তরের সংযোগ স্থাপিত হবে।

বাংলাদেশের বিজয়ের মাস ডিসেম্বরে দৈনিকের আত্মপ্রকাশের সময়ে মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করি। যে স্বাধীনতা ও মুক্তির জন্য লড়াই করেছেন তারা, তা সমুন্নত রাখার লড়াইয়ে আজ দেশ রূপান্তর যুক্ত হলো।

এই শুভক্ষণে দেশ রূপান্তরের উদ্যোক্তা রূপায়ণ গ্রুপকে ধন্যবাদ জানাই।

শুভেচ্ছা জানাই পাঠক, হকার, এজেন্ট, বিক্রেতা, বিজ্ঞাপনদাতাসহ আমাদের সকল শুভানুধ্যায়ীকে।

অমিত হাবিব: সম্পাদক, দেশ রূপান্তর