পৌষে বাগদান, বৈশাখে বিয়ে|112288|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২১ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৭:৪৮
পৌষে বাগদান, বৈশাখে বিয়ে
নিজস্ব প্রতিবেদক

পৌষে বাগদান, বৈশাখে বিয়ে

২০ ডিসেম্বর রাতে অনাড়ম্বর আয়োজনে হয়ে গেল চিত্রনায়িকা দীপালির বাগদান

চলছে বিয়ের মৌসুম। এ মৌসুমে একের পর এক তারকার উইকেট পড়ে যাচ্ছে। সেই তালিকায় সর্বশেষ যুক্ত হলেন চিত্রনায়িকা দিপালী আক্তার তানিয়া। ২০ডিসেম্বর রাতে অনাড়ম্বর আয়োজনে হয়ে গেল দীপালির বাগদান। বর পরিচালক ও প্রযোজক জায়েদ রেজওয়ান। পৌষের হিমেল হাওয়ায় বাগদান সারলেও বিয়ে করবেন বৈশাখে।

দেশ রূপান্তরকে দিপালী বলেন, 'হুট করেই বাগদান হয়ে গেছে। পারিবারিকভাবেই সব আয়োজন করা হয়েছে। তড়িঘড়ি হওয়ায় তেমন কোনো অনুষ্ঠানের আয়োজন করিনি। তবে ইচ্ছে আছে বিয়েটা আমরা ধুমধামের সঙ্গেই করব।'

তিনি আরও বলেন, 'মাত্র তো বাগদান হলো। অনুভূতি বলা মুশকিল। কিছুদিন যাক তারপর নিজের অনুভূতি বলা যাবে।'

রেজওয়ানের সঙ্গে পরিচয় ও পরিণয় সম্পর্কে দিপালী বলেন, 'তার পরিচালনায় 'আঘাত' নামের একটি ওয়েব সিরিজে কাজ করতে গিয়ে পরিচয়। তবে তার সঙ্গে কোনো প্রেম-টেম ছিল না। তিনি সরাসরি বিয়ের প্রস্তাবই দিয়েছিলেন। আমি বলেছিলাম আমার পরিবারের কাছে প্রস্তাব নিয়ে যেতে। তারা রাজি থাকলে আমার কোনো আপত্তি নেই।'

তার মানে আগে থেকেই মনকলা খেয়ে বসেছিলেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে দিপালী হেসে বলেন, 'না। তা নয়। আমি আসলে বুঝে উঠতে পারিনি। তার প্রস্তাবে কি করব। পরে পরিবারও যখন রাজি হয়ে যায় তখন আর আপত্তি করিনি।'

বাগদান হলো, বিয়ে কবে হবে? 'ইচ্ছে আছে একটু ধুমধাম করে বিয়েটা করব। সেজন্য একটু সময় নিয়ে ভালো করে আয়োজন করেই সব করব। সবঠিক থাকলে  আগামী বছরের এপ্রিল মাসে বিয়ের অনুষ্ঠান করার প্ল্যান আছে।'

বাগদান অনুষ্ঠানে দুই পরিবারের সদস্যরা ছাড়াও বেশ কয়েকজন তারকাও উপস্থিত ছিলেন। রোমানা নীড়, বিপাশা কবির, জয় চৌধুরী, শ্রাবণ খান, সময়, সংগীতশিল্পী শফিক তুহিন, কিশোর, পূজাসহ আরও অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

দিপালী আক্তার তানিয়ার শুরুটা হয় ছোটপর্দা দিয়ে।‘রমিজের আয়না’, ‘বৈশাখ থেকে শ্রাবণ’, ‘কাননে কুসুম কলি’, ‘পাটি গণিত’, ‘ইট কাঁচের খাঁচা’, ‘হৈ হৈ রৈ রৈ’, ‘ঘোড়ার ডিম’, ‘সাত কাহন’ নামের ধারাবাহিক নাটকসহ ৪০টির বেশি নাটকে অভিনয় করেছেন। ‘ব্ল্যাক মেইল’ ছবিতে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে বড় পর্দায় নাম লেখান তিনি। এরপর ‘বাজে ছেলে : দ্য লোফার’, ‘আমি তোমার হতে চাই’ সিনেমায় কাজ করেন।