‘জিরো’ দেখে মন ভরেনি|112290|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২১ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৮:১১
‘জিরো’ দেখে মন ভরেনি
অনলাইন ডেস্ক

‘জিরো’ দেখে মন ভরেনি

‘জিরো’ চলচ্চিত্রে শাহরুখ খান ও ক্যাটরিনা কাইফ। ছবি: ফেসবুক থেকে

শাহরুখ ভেবেছিলেন খর্বাকৃতি মানুষ হয়ে একেবারে চমকে দেবেন সকলকে। কিন্তু উল্টোটাই হলো। শাহরুখের অন্ধ ভক্তরা যথেচ্ছ সিটি বাজাতেই পারেন তাকে পর্দায় দেখে। কিন্তু গল্পের গরু গাছে উঠতে উঠতে দর্শকের ধৈর্যচ্যুতি ঘটায়।- বুঝতেই পারছেন বলিউডের কিং খানের নতুন সিনেমা ‘জিরো’ নিয়ে কথা হচ্ছে। আর লেখনীর ধরনও নেতিবাচক।

অবশ্য বক্স অফিস ফলাফল কী হবে এখনই বলা যাচ্ছে না। আমির খানের ‘ড্রাগস আব হিন্দুস্তান’ তো প্রথম দিনের আয়ে রীতিমতো রেকর্ড গড়েছিল। কিন্তু সেই উচ্ছ্বাস মিলিয়ে যেতে সময় লাগেনি। ব্লকবাস্টার হিট তো দূরের কথা, বাজেটও তুলতে পারেনি। অন্যদিক ‘রেস থ্রি’ দিয়ে একদমই দফারফা দশা আরেক খান সালমানের।

আনন্দবাজার পত্রিকার ওই রিভিউতে বলা হয়, লিখতে বাধ্য হচ্ছি, ‘জিরো’র প্রতিটি ফ্রেম ‘লাইফহীন’। দর্শক শাহরুখ, আনুশকা আর ক্যাটরিনা ওরফে ছবির ববিতার জন্য প্রচুর ধৈর্য ধরেছেন। তাও শেষে পপকর্নে পেট ভরানো ছাড়া আর কিছুতে মন ভরেনি। শাহরুখ খানের ত্রিকোণ প্রেম! অথচ মনকাড়া সংলাপ নেই! হল থেকে বেরিয়ে গেলে একটা গানও মনে পড়ে না।

আরও বলা হয়, সিনেমার প্রথম শো শেষ হওয়ার আগেই হল থেকে দর্শকরা নেতিবাচক মন্তব্য লিখে টুইট করেছেন। প্রথম দিনই সিনেমার ভাগ্য নির্ধারিত হয়ে গিয়েছিল। শাহরুখ, আনুশকা শর্মা এবং ইমতিয়াজ আলিও ছবির সাফল্য এনে দিতে পারেননি। গল্প বলতে কি ভুলে গেলেন বি টাউনের নির্মাতা আনন্দ এল রাই?

এদিকে একই রকম হতাশার কথা লিখেছেন তরণ আদর্শও। এ সিনে বিশ্লেষকের মতে, ‘জিরো’ হলো মহাকাব্যিক হতাশা।

তার মতে, তারকার উপস্থিতি, ভালো অভিনয়, চমৎকার গান, বড়দিন-নববর্ষের ছুটি সবই ছিল ‘জিরো’র পক্ষে। কিন্তু এর কোনটাই নয়- দুর্বল, খামতিপূর্ণ ও নিস্প্রভ চিত্রনাট্যের জন্য দর্শক ছবিটিকে মনে রাখবে।

শাহরুখ-ক্যাটরিনা-আনুশকার সঙ্গে আরও অভিনয় করেন অভয় দেওল ও আর মাধবন। বিশেষ গানে আছেন সালমান খান। ক্যামিও চরিত্রে আছেন প্রয়াত শ্রীদেবী, কাজল, রানি মুখার্জি, আলিয়া ভাট, দীপিকা পাড়ুকোন, কারিশমা কাপুর ও জুহি চাওলার মতো তারকা।