শেষটাও রাঙানোর অপেক্ষায় বাংলাদেশ|112466|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২২ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৩:২২
শেষটাও রাঙানোর অপেক্ষায় বাংলাদেশ
অনলাইন ডেস্ক

শেষটাও রাঙানোর অপেক্ষায় বাংলাদেশ

ছবি: নাজমুল হক বাপ্পি

দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে হোয়াইটওয়াশড, তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজটি ২-১ ব্যবধানে নিজেদের করে নেওয়া; তিন ম্যাচের টি-টুয়েন্টি সিরিজে পিছিয়ে পড়ে দাপুটে প্রত্যাবর্তন। সবকিছু মিলিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চলতি হোম সিরিজে অসাধারণ ফর্মে বাংলাদেশ। রাঙানোর অপেক্ষায় সিরিজের শেষটাও।

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শনিবার বিকাল ৫টায় ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে তিন ম্যাচের শেষ টি-টুয়েন্টিতে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ।

ম্যাচটির আগে উজ্জীবিত সাকিব আল হাসানের দল। সিলেটে প্রথম টি-টুয়েন্টিতে ৮ উইকেটে হেরে সিরিজে পিছিয়ে পড়েছিল তারা। তাতে খেই হারায়নি। গত বৃহস্পতিবার মিরপুরে দ্বিতীয় ম্যাচে ৩৬ রানের দাপুটে জয়ে সিরিজে ফেরায় ১-১ সমতা।

টি-টুয়েন্টির ইতিহাসে ম্যাচটি স্মরণীয় হয়ে থাকবে বাংলাদেশের। মিরপুরের উইকেটে প্রাণ খুলে ব্যাট করেছিলেন লিটন দাস, সাকিব ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তাদের ব্যাটিং তাণ্ডবে দল ২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে দল তুলে ২১১ রান। টি-টুয়েন্টিতে ঘরের মাঠে বাংলাদেশের জন্য এটা সবচেয়ে বড় সংগ্রহ।

বোলাররাও দাপট দেখালেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ১৭৫ রানে অলআউট করে টাইগাররা। বাংলাদেশ পায় দুর্দান্ত এক জয়। ম্যাচটা বেশি স্মরণীয় হয়ে থাকবে সাকিবের জন্য। ব্যাটে হাতে ২৬ বলে ৪২ রান করার পর বলহাতে দেখান ক্যারিয়ার সেরা পারফরম্যান্স। চার ওভারে ২০ রানে নেন ৫ উইকেট।

সিরিজের শেষ ম্যাচটিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারাতে পারলে দারুণ এক ইতিহাস গড়বে বাংলাদেশ। তিন ফরম্যাটের ক্রিকেটের পূর্ণাঙ্গ সিরিজের সবকটি শিরোপা জয়ের কীর্তি গড়বে তারা।

গত দশ বছরে ১৪টি পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলেছে বাংলাদেশ। এর মধ্যে দুইবার সুযোগ এলেও তিন ফরম্যাটে সিরিজ জয়ের কৃতিত্ব একবারও দেখাতে পারেনি টাইগাররা। ২০০৯ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে টেস্ট ও ওয়ানডে সিরিজ জিতলেও হারতে হয় টি-টুয়েন্টিতে। সুযোগ এসেছিল ২০১৫ সালেও। ঘরের মাঠে ওয়ানডে সিরিজে পাকিস্তানকে হোয়াইটওয়াশড করার পর টি-টুয়েন্টিতেও জিতেছিল স্বাগতিকরা। কিন্তু হেরে যেতে হয়েছিল টেস্ট সিরিজে।

এই অপূর্ণতা ঘুচানোর সুবর্ণ সুযোগ এবার। ক্যারিবীয়দের তৃতীয় ও শেষ টি-টুয়েন্টিতে হারাতে পারলেও পূর্ণাঙ্গ সিরিজ জয়ের আনন্দে ভাসবে বাংলাদেশ। জয়ের রঙে রাঙানো হবে বছরে নিজেদের শেষ ম্যাচটাও।