ক্লাব বিশ্বকাপ জয়ে রিয়ালের হ্যাটট্রিক|112653|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৩ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০৯:৩২
ক্লাব বিশ্বকাপ জয়ে রিয়ালের হ্যাটট্রিক
অনলাইন ডেস্ক

ক্লাব বিশ্বকাপ জয়ে রিয়ালের হ্যাটট্রিক

ক্লাব বিশ্বকাপের শিরোপা নিয়ে রিয়াল মাদ্রিদ খেলোয়াড়দের উল্লাস। ছবি: রিয়াল মাদ্রিদ টুইটার

সংযুক্ত আরব আমিরাতের ক্লাব আল আইনকে উড়িয়ে টানা তিনবার ক্লাব বিশ্বকাপ জয়ের রেকর্ড গড়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। সেই সঙ্গে প্রতিযোগিতাটিতে সবচেয়ে বেশিবার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেছে স্পেনের ক্লাবটি।

আবু ধাবির শেখ জায়েদ স্পোর্টস সিটিতে শনিবার ফাইনালে স্বাগতিকদের ৪-১ গোলে হারায় রিয়াল। একটি করে গোল করে দলের জয়ে অবদান রাখেন লুকা মদ্রিচ, মার্কোস লরেন্তে ও সের্হিও রামোস; অপর গোলটি আত্মঘাতী।

ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপে ১৫ আসরের মধ্যে সর্বোচ্চ চারবার চ্যাম্পিয়ন হল রিয়াল। গত বছর ফাইনালে ব্রাজিলিয়ান ক্লাব গ্রেমিওকে হারিয়ে তিনবার এই শিরোপা জেতা চির প্রতিদ্বন্দ্বী বার্সেলোনার রেকর্ডে ভাগ বসিয়েছিল সান্তিয়াগো বের্নাবেউয়ের ক্লাবটি। রেকর্ডটি এবার নিজেদের করে নিল চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ীরা।

ফাইনাল ম্যাচের শুরু থেকেই বল দখল ও আক্রমণে আধিপত্য দেখায় রিয়াল। চতুর্দশ মিনিটেই গোলের দেখা পায় দলটি। ডি-বক্সে বল পেয়ে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে লুকা মদ্রিচকে ব্যাক-পাস দেন করিম বেনজেমা। ডি-বক্সের খানিকটা বাইরে থেকে বাঁ পায়ের জোরালো শটে জাল খুঁজে নেন ক্রোয়েশিয়ান এই মিডফিল্ডার।

প্রথমার্ধে আর কোনো গোল হয়নি। ৬০তম মিনিটে দ্বিতীয় গোলের দেখা পায় রিয়াল। কর্নার কিকের বলটি বিপদমুক্ত করতে চেয়েছিল আল আইনের এক ডিফেন্ডার। তাতে বল পেয়ে যান ডি-বক্সের বাইরে থাকা লরেন্তে। দারুণ এক হাফ-ভলিতে ২৫ গজ দূর থেকে জালে বল জড়ান রিয়ালের এই স্প্যানিশ মিডফিল্ডার। ক্লাবটির হয়ে প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে এটাই তার প্রথম গোল।

ম্যাচের ৭৮তম মদ্রির কর্নার কিক থেকে অধিনায়ক রামোস হেডে জালে বল জড়ালে প্রায় নিশ্চিত হয়ে যায় রিয়ালের জয়। যোগ করা সময়ে স্বাগতিক দলের ডিফেন্ডার নিজেদের জালে বল জড়িয়ে বসলে আরও বাড়ে ব্যবধান।

গোলের ব্যবধান আরও বেশি করতে পারত রিয়াল। ম্যাচের শুরুতেই লুকাস ভাসকেসের জোরালো একটি শট লাগে পোলপোস্টে। অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয় সেমি-ফাইনালে কাশিমা অ্যান্টলার্সের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করা গ্যারেথ বেলের দারুণ একটি বাইসাইকেল শট।

ম্যাচে আল আইনের একমাত্র সান্ত্বনাসূচক গোলটি করেন জাপানি ডিফেন্ডার তুসুকাসা সিওতানি।

এই নিয়ে পাঁচবার ক্লাব বিশ্বকাপ জয়ের আনন্দে ভাসলেন রিয়ালের জার্মান মিডফিল্ডার টনি ক্রুস। এর মধ্যে চারবার জিতেছেন রিয়ালের হয়ে। একবার বায়ার্ন মিউনিখের হয়ে।

একই ভেন্যুতে প্রতিযোগিতার তৃতীয়স্থান নির্ধারণী ম্যাচে জাপানের ক্লাব কাশিমা অ্যান্টলার্সকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে কোপা লিবের্তাদোরেস জয়ী আর্জেন্টাইন ক্লাব রিভার প্লেট।