চিরনিদ্রায় শায়িত আমজাদ হোসেন|112676|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৩ ডিসেম্বর, ২০১৮ ১৪:৩৩
চিরনিদ্রায় শায়িত আমজাদ হোসেন
জামালপুর প্রতিনিধি

চিরনিদ্রায় শায়িত আমজাদ হোসেন

জামালপুর হাই স্কুল মাঠে আমজাদ হোসেনের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। ছবি: দেশ রূপান্তর

প্রখ্যাত চলচ্চিত্র নির্মাতা আমজাদ হোসেনের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। রবিবার বেলা সাড়ে ১১টায় জামালপুর পৌর কবরস্থানে বাবা-মায়ের কবরের পাশে তিনি শায়িত হন।

সকাল সাড়ে পৌনে ১০টায় জামালপুর হাই স্কুল মাঠে আমজাদ হোসেনের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজা পরিচালনা করেন স্কুল মসজিদের ইমাম মাওলানা আলাউদ্দিন।

এর আগে সকাল সাড়ে ৯টায় স্কুলের মাঠে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা জানানোর জন্য লাশ রাখা হয়।

ওই সময় জামালপুর-৫ আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য রেজাউল করিম হীরা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শফিকুল ইসলাম, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহাম্মদ চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট বাকী বিল্লাহ, জামালপুর-৫ (সদর) আসনের আওয়ামী লীগের প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার মোজাফফর হোসেন, বিএনপি প্রার্থী ও জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ওয়ারেছ আলী মামুন, জামালপুরের রাজনৈতিক, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন ও বিভিন্ন শ্রেণি পেশার তাকে মানুষ ফুল দিয়ে তাকে শেষ শ্রদ্ধা জানান।

জানাজা নামাজের আগে সবার উদ্দেশ্যে কথা বলেন আমজাদ হোসেনের দুই ছেলে সাজ্জাদ হোসেন দোদুল ও সোহেল আরমান এবং শিষ্য চলচ্চিত্র পরিচালক এস এ হক অলীক।

দুই ছেলে জানান, আমজাদ হোসেন জামালপুরের মানুষকে ভালোবাসতেন। তাই তিনি জামালপুর পৌর কবরস্থানে বাবা-মায়ের কবরের পাশে দাফন করার কথা বলে গিয়েছিলেন।

আমজাদ হোসেনের মরদেহ শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে পৈতৃক বাড়ি শহরের ইকবালপুরে পৌঁছালে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে। রাতেই বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম মরদেহ দেখতে গিয়ে তার পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান।

১৪ ডিসেম্বর ব্যাংকের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান আমজাদ হোসেন। তার বয়স হয়েছিল ৭৬ বছর। তিনি ১৯৪২ সালের ১৪ আগস্ট জামালপুরের ইকবালপুরে জন্মগ্রহণ করেন।