হঠাৎ সহিংসতার বিস্তার|113012|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৫ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০
হঠাৎ সহিংসতার বিস্তার
রেজাউল করিম লাবলু

হঠাৎ সহিংসতার বিস্তার

সেনা মোতায়েনের প্রথম দিন সারা দেশে এবারের নির্বাচনী প্রচারে সবচেয়ে বেশি সহিংসতা হয়েছে। গতকাল সোমবার খাগড়াছড়ির পানছড়িতে শান্তি চুক্তিবিরোধী সংগঠন ইউপিডিএফ-সমর্থিত প্রার্থীর নির্বাচনী কার্যালয়ে হামলার পর গোলাগুলিতে নিহত হয়েছেন দুজন। শরীয়তপুরের গোসাইরহাটে বিএনপির প্রার্থী মিয়া নুরুদ্দিন অপু, লক্ষ্মীপুরে বিএনপির প্রার্থী শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে মো. শরীফুল আলম এবং মুন্সীগঞ্জের টঙ্গিবাড়ীতে মিজানুর রহমান সিনহা আহত হয়েছেন। নোয়াখালীতে বিএনপির প্রার্থী জয়নুল আবদিন ফারুককে লক্ষ করে গুলি ও মওদুদ আহমদের গাড়িবহরে হামলা হয়েছে। এ ছাড়া মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন ও শেরপুরে ডা. সানসিলা জেবরিন প্রিয়াঙ্কার গাড়িবহরেও হামলা হয়েছে।

সহিংসতার জন্য বিএনপি দায়ী করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি) ও সরকারকে। আওয়ামী লীগ বলছে, এসব হামলা বিএনপির পরিকল্পনার অংশ। প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা আশা প্রকাশ করে বলেছেন, সেনাবাহিনী মোতায়েন হওয়ায় নির্বাচনী পরিবেশ ফিরে আসবে।

দেশের বিভিন্ন স্থানে বিএনপিদলীয় প্রার্থীদের ওপর হামলার জন্য সরকার ও ইসিকে দায়ী করে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ইসি ও সরকারের যৌথ প্রযোজনায় নির্বাচনকে প্রহসন ও তামাশায় পরিণত করা হয়েছে। এটাকে কোনো নির্বাচনই বলা যায় না।

বিএনপির এ অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ফারুক খান দেশ রূপান্তরকে বলেন, প্রচার শুরুর দিন থেকেই বিএনপি সহিংসতায় জড়িত। বিভিন্ন স্থানে হামলা তাদের পূর্বপরিকল্পনার অংশ। এতে আওয়ামী লীগের কোনো সম্পর্ক নেই। এ বিষয়ে পুলিশের মহাপরিদর্শক ও ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনারের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তারা ফোন ধরেননি।

গতকাল থেকে সারা দেশে সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন দেশ রূপান্তরকে বলেছেন, সেনাবাহিনী মোতায়েনের পর তারা আশা করেছিলেন প্রার্থীদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটবে না। এরপরও কয়েকটি স্থানে ধানের শীষের প্রার্থীদের ওপর হামলা হয়েছে। আগামী দু-এক দিনের মধ্যে সেনাবাহিনী আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি। একই দিন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের তার নির্বাচনী এলাকায় এক অনুষ্ঠানে বলেছেন, সেনাবাহিনী কোনো দলের নয়, কোনো জোটের নয়। সেনাবাহিনী কোনো  পক্ষে যাবে না। তারা নিরপেক্ষ ভূমিকা পালন করবে।

আমাদের ব্যুরো অফিস, নিজস্ব প্রতিবেদক, জেলা ও উপজেলা প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

খাগড়াছড়ি : পানছড়ি উপজেলার পুজগাং বাজারে গতকাল দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ইউপিডিএফ-সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থী নুতন কুমার চাকমার নির্বাচনী কার্যালয়ে হামলার পর গোলাগুলিতে দুজন নিহত হয়েছেন। তারা হলেনÑউপজেলার লোগাং গ্রামের রতœ কান্তি চাকমার ছেলে উজ্জ্বল কান্তি চাকমা চিক্কো (৩০) ও নির্মাণশ্রমিক সোহেল রানা (৩২)। পানছড়ি থানার ওসি নুরুল আলম জানান, আঞ্চলিক দলের চলমান সংঘাত ও আধিপত্য নিয়ে এ ঘটনা ঘটেছে। ময়নাতদন্তের পর মরদেহ স্বজনদের হস্তান্তর করা হবে।

ইউপিডিএফের প্রচার ও প্রকাশনা বিভাগের প্রধান নিরন চাকমা সিংহ মার্কার প্রার্থী নুতন চাকমার নির্বাচনী কার্যালয়ে হামলার জন্য জেএসএসকে (এমএন লারমা) দায়ী করেছেন। জেএসএস বলেছে, তাদের দলীয় কোন্দলের কারণেই এ ঘটনা ঘটেছে।

ফরিদপুর : শরীয়তপুর-৩ (ডামুড্যা-গোসাইরহাট-ভেদরগঞ্জের আংশিক) আসনে বিএনপিপ্রার্থী নুরুদ্দিন আহম্মেদ অপুর মিছিলে হামলা হয়েছে। গতকাল দুপুর পৌনে ১২টার দিকে গোসাইরহাট উপজেলা সদরের পট্টি এলাকায় চালানো এ হামলায় তার মাথায় আঘাত লেগেছে। এতে আহত হয়েছেন আরো ২৫ জন। উন্নত চিকিৎসার জন্য অপুকে হেলিকপ্টারে ঢাকায় নেওয়া হয়েছে। গোসাইরহাট থানার ওসি সেলিম রেজা বলেন, আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মিছিলের সংবাদ পেয়ে পুলিশ পাঠাই। ততক্ষণে সংঘর্ষ বেধে যায়। এতে বিএনপির প্রার্থী আহত হন।

লক্ষ্মীপুর : গণসংযোগে হামলায় লক্ষ্মীপুর-৩ (সদর) আসনে ধানের শীষের প্রার্থী শহীদউদ্দিন চৌধুরী এ্যানীসহ আহত হয়েছেন কমপক্ষে ২৫ জন। গতকাল বেলা ১১টার দিকে সদর উপজেলার শান্তিরহাট বাজারে ঘটনার সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে দৈনিক মানবজমিন ও ইন্ডিপেন্ডেন্ট টিভির জেলা প্রতিনিধি আব্বাছ হোসেনসহ তিন সাংবাদিকও আহত হন। এ সময় বিএনপি ও আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা সংঘর্ষে জড়ান বলেও জানিয়েছেন আমাদের লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি।

এ্যানী বলেন, ‘গণসংযোগ চলাকালে কুশাখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আমিন এবং সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমানের নেতৃত্বে পুলিশের উপস্থিতিতে অতর্কিতে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়। এ সময় আমিসহ ২৫ নেতাকর্মী আহত হই।’ তবে অভিযোগ অস্বীকার করে ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আমিন জানান, বিএনপির নেতাকর্মীরা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালায়। এতে কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হয়।

দাসেরহাট পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মো. মতিন জানান, কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়। এ সময় এসআই আবদুর রেজ্জাক ও এক কনস্টেবলও আহত হন।

কিশোরগঞ্জ : কুলিয়ারচরে পুলিশ ও বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষে বিএনপিপ্রার্থী মো. শরীফুল আলমসহ কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন। পুলিশ জানিয়েছে, এ সময় বিএনপি নেতাকর্মীদের ইটপাটকেলে এএসআই শফিকুল ইসলাম ও নাজমুলসহ ছয় পুলিশ সদস্য আহত হন। পাঁচজনকে আটক করা হয়েছে।

নোয়াখালী : নোয়াখালী-২ (সেনবাগ) আসনের বিএনপিপ্রার্থী জয়নুল আবদিন ফারুক অভিযোগ করেছেন, গতকাল দুপুরে কাবিলপুর ইউনিয়নে গণসংযোগের সময় সন্ত্রাসীদের গুলি, ককটেল হামলা ও পুলিশের লাঠিপেটায় ১৪ জন আহত হয়েছেন। আহতরা ফেনী ও দাগনভূঞা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এ সময় সাহায্য চাইলেও পুলিশ তাকে উদ্ধার না করে উল্টো তার সমর্থকদের লাঠিপেটা ও ছয়জনকে আটক করেছে। পরে বিজিবি তাকে উদ্ধার করে বাড়ি পৌঁছে দেয় বলে জানান ফারুক। সেনবাগ থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে তিনি দেখেন ধানের শীষের প্রার্থীর গণসংযোগে দুষ্কৃতকারীরা ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে পালিয়ে গেছে।

এদিকে গতকাল সকালে নোয়াখালী-৫ (কোম্পানীগঞ্জ-কবিরহাট) আসনে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চর কাঁকড়ায় গণসংযোগকালে ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের গাড়িবহরে হামলায় কমপক্ষে আটজন আহত হয়েছে। গাড়ি ভাঙচুর করা হলেও অল্পের জন্য তিনি রক্ষা পেয়েছেন বলে দাবি করেন ধানের শীষের এই প্রার্থী। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ জানান, গণসংযোগকালে ৮-১০টি মোটরসাইকেলে আসা ২৫-৩০ জন সন্ত্রাসী অতর্কিতে হামলা চালায়। এ সময় তার গাড়িসহ দুটি গাড়ি ভাঙচুর করা হয়; আহত হন আট নেতাকর্মী।

মুন্সীগঞ্জ : গতকাল দুপুরে সিরাজদিখান উপজেলার বয়রাগাদি ইউনিয়নের বড় পাউলদিয়া গ্রামে মুন্সীগঞ্জ-১ আসনের বিএনপিপ্রার্থী শাহ মোয়াজ্জেম হোসেনের গাড়িবহরে হামলায় পাঁচটি গাড়ি ভাঙচুর ও চার কর্মী আহত হয়েছেন। সিরাজদিখান ও টঙ্গীবাড়ি সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আশাদুজ্জামান জানান, বিএনপি প্রার্থীর গাড়িবহরের কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুরের ঘটনা শুনেছি।

এদিকে, গত রোববার রাত ১টার দিকে টঙ্গিবাড়ী উপজেলার বাহেরপাড়া এলাকায় মুন্সীগঞ্জ-২ (লৌহজং-টঙ্গিবাড়ী) আসনে বিএনপির প্রার্থী মিজানুর রহমান সিনহার গাড়িতে হামলা ও ভাঙচুরের খবর পাওয়া গেছে। এতে সিনহা ছাড়াও তার স্ত্রী, ছেলেমেয়ে ও নিরাপত্তা কর্মী আহত হন বলে দাবি করেছেন উপজেলা যুবদলের সভাপতি শামীম মোল্লা। সিরাজদিখান ও টঙ্গিবাড়ী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আশাদুজ্জামান বলেন, ‘এমন একটি ঘটনা ঘটেছে শুনেছি। ’

শেরপুর : ধানের শীষের শেরপুর-১ (সদর) আসনের প্রার্থী ডা. সানসিলা জেবরিন প্রিয়াঙ্কা ও নৌকার প্রার্থী হুইপ আতিউর রহমান আতিকের মেয়ে ডা. শারমিন রহমান অমি ও অপির গাড়িবহরে ভাঙচুরের পাল্টাপাল্টি অভিযোগ উঠেছে। প্রিয়াঙ্কার দাবি, গতকাল বিকেলে ঘুঘুরাকান্দি গ্রামে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা হামলা চালিয়ে তার গাড়ি ভাঙচুর ও ১০ নেতাকর্মীকে আহত করেছে। হুইপকন্যা অমির দাবি, বিএনপির নেতাকর্মীরা কুসুমহাটিতে তাদের প্রচারের গাড়িবহরে হামলা করে।

নরসিংদী : পলাশে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে হামলার শিকার হয়েছেন নরসিংদী-২ (পলাশ) আসনে ধানের শীষের প্রার্থী ড. আবদুল মঈন খান। গতকাল দুপুর ২টার দিকে চালানো এ হামলায় গুরুতর আহত তার ব্যক্তিগত সহকারী বাহাউদ্দিন ভূঁইয়া মিল্টনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এর আগে উপজেলার পারুলিয়া দরগা মসজিদ এলাকায় তার গণসংযোগে পুলিশের উপস্থিতিতে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের হামলায় কমপক্ষে ১০ নেতাকর্মী আহত হয়েছেন বলে অভিযোগ বিএনপির। এ ব্যাপারে জানতে আওয়ামী লীগ প্রার্থী ডা. আনোয়ারুল আশরাফ খান দিলীপকে ফোন করলে তা বন্ধ পাওয়া যায়।

গাজীপুর : ধানের শীষের গাজীপুর-৫ (কালীগঞ্জ) আসনের কারাবন্দি প্রার্থী একেএম ফজলুল হক মিলনের স্ত্রী শম্পা হকের ওপর গতকাল হামলা হয়েছে। তার বহরের তিনটি গাড়ি ভাঙচুর ও যুবদল-ছাত্রদলের সাত কর্মীকে বেধড়ক মারধর করে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। কালীগঞ্জ থানার ওসি আবু বক্কর জানান, থানায় অস্ত্র জমা দিতে আসার সময় শম্পা হকের গাড়িতে কে বা কারা ধাওয়া দিলে তিনি থানায় আশ্রয় নেন। পরে অস্ত্র জমা দিয়ে তিনি চলে গেছেন। কোনো হামলার ঘটনা ঘটেনি।

বরিশাল : ধানের শীষের বরিশাল-২ (উজিরপুর-বানারীপাড়া) আসনের প্রার্থী সরফুদ্দিন আহমেদ সান্টুর গাড়িবহরে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা হাতুড়ি নিয়ে হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তবে আওয়ামী লীগ বলছে, এলাকাবাসী অবরোধ করলে সান্টু পিস্তল দিয়ে ৪-৫ রাউন্ড গুলি ছোড়েন। এতে তাদের কর্মী দুলাল তালুকদার গুলিবিদ্ধ ও আহত হন আরো পাঁচ-ছয়জন। বানারীপাড়া থানার ওসি খলিলুর রহমান জানান, সান্টুর গাড়িবহর থেকে হামলা হয়েছে। এমনকি তিনি পিস্তল দিয়ে গুলিও ছুড়েছেন। অভিযোগ অস্বীকার করে সান্টু বলেন, ‘হামলায় আমিসহ ১০ নেতাকর্মী আহত হই।’

সিলেট : আওয়ামী লীগের সিলেট-১ (মহানগর-সদর) আসনের প্রার্থী ড. এ কে আবদুল মোমেনের নির্বাচনী কার্যালয়ে ককটেল হামলা হয়েছে। গত রোববার মধ্যরাতে নগরীর চৌকিদেখি এলাকায় তার একটি নির্বাচনী কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। এয়ারপোর্ট থানার ওসি শাহাদাৎ হোসেন জানান, দুর্বৃত্তরা ককটেল ফাটিয়ে ও ভাঙচুর চালিয়ে চলে যায়।

চাঁদপুর : বিএনপি ও আওয়ামী লীগ কর্মীদের সংঘর্ষে কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়েছেন। গতকাল দুপুরে জেএম সেনগুপ্ত রোডে এ ঘটনা ঘটে। চাঁদপুর মডেল থানার ওসি মো. নাসিমউদ্দিন জানান, সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ, র‌্যাব, বিজিবি ঘটনাস্থলে যায়।

জয়পুরহাট : সদর ও পাঁচবিবি উপজেলায় নৌকা প্রতীকের নির্বাচনী কার্যালয়ে ককটেল নিক্ষেপ, অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুর হয়েছে। জয়পুরহাট থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম ও পাঁচবিবি থানার ওসি বজলার রহমান জানান, গত রোববার গভীর রাতে সদর উপজেলার চকবরকত, পুরানাপৈল, পালি আদিবাসী বাজার এবং পাঁচবিবির বারইল ও কাথইলে পাঁচটি নির্বাচনী কার্যালয়ে কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে চেয়ার-টেবিল ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করা হয়।

জামালপুর : সরিষাবাড়ীতে নৌকা মার্কার প্রার্থী ডা. মুরাদ হাসানের পথসভা থেকে তার সমর্থকরা উপজেলা বিএনপির কার্যালয়ে ভাঙচুর ও আগুন দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সরিষাবাড়ী থানার ওসি মাজেদুর রহমান জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

রাজশাহী : গোদাগাড়ী উপজেলায় বিএনপিপ্রার্থীর সমর্থকরা নৌকার নির্বাচনী কার্যালয় পুড়িয়ে দিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আতাউর রহমান। তবে ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি হাবিবুর রহমান হাবু বলেন, ‘রাতের আঁধারে কে বা কারা নৌকা পুড়িয়েছে তা আমি জানি না।’ গোদাগাড়ী থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘ঘটনাটি শুনেছি। ’

চট্টগ্রাম ব্যুরো : গতকাল বিকেলে পাহাড়তলী এলাকায় নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে হামলার শিকার হয়েছেন চট্টগ্রাম-৬ (রাউজান) আসনের বিএনপিপ্রার্থী জসিম উদ্দিন সিকদার ও তার ছেলে আকিব সিকদার। ঘটনার জন্য আওয়ামী লীগের প্রার্থীকে দায়ী করেছেন জসিম উদ্দিন। এ বিষয়ে জানতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী এ বি এম ফজলে করিমের মোবাইলে একাধিকবার ফোন করেও তা বন্ধ পাওয়া যায়।

ফটিকছড়ি (চট্টগ্রাম) : মহাজোটের প্রার্থী সৈয়দ নজিবুল বশর মাইজভান্ডারীর সমর্থকদের বিরুদ্ধে প্রচারের গাড়িবহরে হামলার অভিযোগ করেছেন ইসলামী ফ্রন্টের প্রার্থী সৈয়দ সাইফুদ্দীন মাইজভান্ডারী। গতকাল দুপুরে উপজেলার মাইজভান্ডার দরবার শরিফে নিজ বাসভবনে সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন তিনি।

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) : মহাজোটের নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁ) আসনের প্রার্থী সাংসদ লিয়াকত হোসেন খোকার প্রচারে যুবলীগ ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের হামলায় লাঙ্গলের পাঁচ কর্মী আহত হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। গতকাল দুপুরে বারদী ইউনিয়নে এ হামলা হয় বলে অভিযোগ করেছেন সাংসদ খোকা।

নড়াইল : গতকাল দুপুরে লোহাগড়া উপজেলার এড়েন্দা বাসস্ট্যান্ডে ধানের শীষের নড়াইল-২ আসনের প্রার্থী ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) চেয়ারম্যান ড. এ জেড এম ফরিদুজ্জামান ফরহাদ গণসংযোগে যাওয়ার পথে হামলার শিকার হন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।