মাশরাফীকে পেয়ে ভক্ত ভোটার একাকার|113128|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০
নড়াইল-২ আসন
মাশরাফীকে পেয়ে ভক্ত ভোটার একাকার
নড়াইল প্রতিনিধি

মাশরাফীকে পেয়ে ভক্ত ভোটার একাকার

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা নড়াইল-২ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। মাশরাফী বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ ও পথসভায় বের হলে রাস্তার দুই ধারে শত শত নারী-পুরুষ দাঁড়িয়ে তাকে অভিনন্দন জানাচ্ছে এবং একনজর দেখার চেষ্টা করছে।

এ আসনে তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী এনপিপির চেয়ারম্যান এ জেড এম ফরিদুজ্জামান ফরহাদসহ (ধানের শীষ) আরো ছয়জন।

এখানে মোট সাতজন প্রার্থী হলেও জাতীয় পার্টির প্রার্থী ফায়েকুজ্জামান ফিরোজ সম্প্রতি মাশরাফীকে সমর্থন দিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন।

মাশরাফীকে প্রার্থী হিসেবে পেয়ে নড়াইলে নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ ভীষণ খুশি।

এখানকার অনেকেই মাশরাফীকে টেলিভিশনে দেখলেও সরাসরি তার দেখা পাননি। তাই ভোটের আগে তাকে অন্তত একনজর দেখতে চান ভোটাররা।

মাশরাফী গতকাল মঙ্গলবার তৃতীয় দিনের মতো বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ ও পথসভা চালিয়েছেন।

গতকাল এড়েন্দা-কামাল প্রতাপ সড়কের পদ্মবিলা, এড়েন্দা-আমাদা সড়কের শালবরাত, ঝিকড়া, কুচিয়াবাড়ি, আমাদা, বয়রা, দিঘলিয়া, মহাজন, কলাগাছি, তালবাড়িয়াসহ বিভিন্ন সড়কের মোড়ে মোড়ে ও বাজারে মাশরাফীর পোস্টার ও প্রচারপত্র নিয়ে অসংখ্য ভোটার ও ভক্তদের দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে। অনেকে ফুলের মালা নিয়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন প্রিয় নেতাকে পরিয়ে দিতে।

লোহাগড়া উপজেলার সরুশুনা গ্রামের রিনা বেগম বলেন, ‘মাশরাফীকে টেলিভিশনে দেখেছি। তাকে সরাসরি দেখার খুব ইচ্ছে। আমি ভোট দেওয়ার আগে একবারের জন্য মাশরাফীকে দেখতে চাই।’  লোহাগড়া উপজেলার বাড়িভাঙ্গা গ্রামের লিপি বেগম বলেন, ‘মাশরাফীকে আমার দেখার খুব ইচ্ছা। আমি যদি দেখা করতে পারতাম, তাহলে আমার এলাকার সমস্যার কথা তুলে ধরতাম। আমাদের অনেকেই মাশরাফীকে একনজর দেখার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষায় আছেন।’

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সুবাস চন্দ্র বোস বলেন, ‘খেলার কারণে মাশরাফীর নড়াইলে আসতে দেরি হয়েছে। গত ২২ ডিসেম্বর নড়াইলে আসার পর ২৩ ডিসেম্বর থেকে গণসংযোগ ও পথসভা শুরু হয়েছে।