অতীত বদলাতে হবে পাকিস্তানকে|113166|Desh Rupantor
logo
আপডেট : ২৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০
অতীত বদলাতে হবে পাকিস্তানকে
ক্রীড়া ডেস্ক

অতীত বদলাতে হবে পাকিস্তানকে

ফাইল ছবি

টেস্ট ক্রিকেটে পাকিস্তানের হতাশার নাম দক্ষিণ আফ্রিকা। ১৯৯৪ সাল থেকে তাদের বিপক্ষে মোট ১০টি টেস্ট সিরিজ খেলেছে পাকিস্তান। জিতেছে মাত্র এক সিরিজে। বাকি নয়টির মধ্যে হার ছয়বার, ড্র তিনবার। দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে কখনই সিরিজ জিততে পারেনি পাকিস্তান। ২০১২-১৩ মৌসুমে সর্বশেষ সফরে তিন টেস্টের সবকটিতে হেরেছিল তারা। এই হতাশার অতীত নিয়ে আরো একটি সিরিজ শুরু করতে যাচ্ছে পাকিস্তান। আজ সেঞ্চুরিয়নে বক্সিং ডে টেস্টে ইতিহাস বদলের লক্ষ্য সরফরাজ আহমেদদের।

এই সিরিজই প্রোটিয়াদের বিপক্ষে ধূসর অতীত বদলের সেরা সুযোগ পাকিস্তানের জন্য। ব্যাটিং জিনিয়াস এবি ডি ভিলিয়ার্স অবসরে। টেস্টে স্বাগতিকদের দুই ফ্রন্টলাইন পেসার ভেরনন ফিল্যান্ডার ও লুনগি এনগিডি নেই। বর্তমান ভরসা হাশিম আমলাও লম্বা অফফর্মে আছেন। এদিকে যেকোনো ব্যাটিংলাইনকে চ্যালেঞ্জ দেওয়ার মতো বোলিং ইউনিট আছে পাকিস্তানের।

সম্প্রতি সংযুক্ত আরব আমিরাতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ হেরেছে তারা। নিজেদের মনের মতো উইকেট তৈরি করেও কিউই স্পিনারদের ভালোভাবে সামলাতে পারেনি পাকিস্তান। নতুন সিরিজের আগে দলটির জন্য বড় চিন্তা ব্যাটিং ব্যর্থতা। এই একটি কারণে কিউইদের বিপক্ষে দারুণ বোলিং করেও পিছিয়ে পড়তে হয় পাকিস্তানকে। আরব আমিরাতে ব্যর্থ সরফরাজদের জন্য দক্ষিণ আফ্রিকার কন্ডিশন আরো কঠিন হবে। অভিজ্ঞ মোহাম্মদ হাফিজ অবসর নেওয়ায় তরুণ ব্যাটিংলাইন বাড়তি চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হবে। তবে চ্যালেঞ্জের পাহাড় টপকালে ইতিহাস বদল হাতছানি দিচ্ছে পাকিস্তানকে। এই ম্যাচে টেস্টে দেশের সর্বোচ্চ উইকেটশিকারির রেকর্ড গড়ার অপেক্ষায় প্রোটিয়া পেসার ডেল স্টেইন। আর ১ উইকেট নিলেই টপকে যাবেন ৪২১ উইকেট নেওয়া শন পোলককে।